fbpx
BBS_AD_BBSBAN
২২শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ৯ই ফাল্গুন ১৪৩০ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

অনলাইনে দাখিল হয়েছে ২ দশমিক ৬৬ শতাংশ মনোনয়নপত্র

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

আগামী ৭ জানুয়েরি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০টি দল ও স্বতন্ত্র থেকে মোট দুই হাজার ৭৪১টি মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছে। এর মধ্যে অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিল করা হয়েছে মাত্র ৭৩টি, যা মোট মনোনয়নপত্রের ২ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জনসংযোগ পরিচালক মো. শরিফুল আলম জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। এতে মোট দুই হাজার ৭৪১টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে।

এদিকে ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মোট ৭৩টি মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছে অনলাইনে। এগুলোর মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থীর দাখিল করেছেন ২৩টি মনোনয়নপত্র।

অন্যগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি দুটি, বাংলাদেশ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- বাংলাদেশ জাসদ দুটি, তৃণমূল বিএনপি চারটি, বাংলাদেশ কংগ্রেস চারটি, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট একটি, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট একটি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল একটি, ইসলামী ঐক্যজোট একটি, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ দুটি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি চারটি, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন তিনটি, জাকের পার্টি ছয়টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল তিনটি, জাতীয় পার্টি ছয়টি, বিকল্প ধারা বাংলাদেশ একটি, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি একটি, গণতন্ত্রী পার্টি একটি ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাতটি মনোনয়নপত্র অনলাইনে জমা দিয়েছে।

গত ১২ নভেম্বর অনলাইন নমিনেশন সাবমিশন সিস্টেমের (ওএনএসএস) উদ্বোধন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তিনি ওইদিন বলেন, নমিনেশন পেপার তুলতে বাধা প্রদান যেমন করা হয়, তেমনি অনেককে জমা দেওয়ার সময় চাপ প্রয়োগ করা হয়, যে প্রত্যাহার করো। এই যে অনাচারগুলো, অনলাইন সিস্টেমের মাধ্যমে কমে আসতে পারে। এবং টোটাল নির্বাচনী ব্যবস্থাটা আরও নির্ভরযোগ্য, আরও সহজ এবং আরও পরিশুদ্ধ হতে পারে। আমরা বিশ্বাস অ্যাপটা নির্ভরযোগ্য হবে। অনলাইন নমিনেশন দলগুলো ব্যবহার করবেন। সাধারণে যদি অ্যাপটা ব্যবহার করেন, উপকৃত হবেন। অ্যাপল, অ্যানড্রয়েড যেকোনো ফোনেই এটা ব্যবহার করতে পারবেন।

সম্প্রতি অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিলের সিস্টেমটি এবং স্মার্টকার্ড নির্বাচন ব্যবস্থাপনা নামে একটি অ্যাপ প্রায় ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি করে নেয় ইসি।

তফসিল অনুযায়ী, প্রার্থীদের জমা দেওয়া মনোনয়নপত্র রিটার্নিং কর্মকর্তারা বাছাই করবেন ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কমিশনে আপিল দায়ের ও নিষ্পত্তি ৫ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৭ ডিসেম্বর। রিটার্নিং কর্মকর্তারা প্রতীক বরাদ্দ করবেন ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনি প্রচার চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত।

Advertisement
Share.

Leave A Reply