fbpx

আফগানিস্তানে হুমকির মুখে নারী মেকাপ আর্টিস্ট ও যৌনকর্মীরা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

জঙ্গি গোষ্ঠী তালেবানের হাতে কাবুল পতনের পরই আফগানিস্তানে বন্ধ হয়ে গেছে বিউটি পার্লার, সেলুনসহ রুপচর্চা কেন্দ্রগুলো। নারী মেকাপ আর্টিস্টরা রিতিমত জীবনের ঝুঁকিতে রয়েছেন। বিউটি পার্লারের সামনে লাগানো নারীদের পোস্টার কালি দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে হুমকির মুখে নারী মেকাপ আর্টিস্ট ও যৌনকর্মীরা

কাবুল পতনের পর বন্ধ হয়ে গেছে রূপচর্চার কেন্দ্রগুলো। ছবি: বিবিসি

আফসুন (ছদ্ম নাম)। লুকিয়ে থাকা এক মেকাপ শিল্পী। সংবাদ মাধ্যম বিবিসিকে বলছিলেন, মেকাপ লিল্প দেশটির জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, এই কাজ ভালবাসতেন তিনি। এটা দিয়েই বেশ যাচ্ছিল দিন। কিন্তু তালেবান ক্ষমতায় আসায় যেই পার্লারে কাজ করতেন সেটা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

শুরুতে নারী শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের কথা জানিয়েছিল তালেবান গোষ্ঠী। তবে দিন দিনই আসল রূপ বের হয়ে আসছে। সরকার গঠনের আগেই নারী যৌনকর্মীদের হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে কট্টরপন্থী এই গোষ্ঠীটি।

আফগানিস্তানে হুমকির মুখে নারী মেকাপ আর্টিস্ট ও যৌনকর্মীরা

ছবি: বিবিসি

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বলছে, যৌনকর্মীদের খুঁজতে সব পর্ন সাইট হাতরে বেড়াচ্ছে তারা। এরই মধ্যে তাদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। জানা গেছে যৌনকর্মী ও ব্লু ফ্লিমের তারকাদের মৃত্যু দণ্ড দেয়ার পরিকল্পনা করছে তারা।

মূলত এ ক্ষেত্রে কোনো বিদেশি পুরুষের সাথে কোনো আফগান নারী যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল কিনা সেটাই খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে তালেবান গোষ্ঠী। গোষ্ঠীটির বিচারে কোনো নারী দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে যৌনদাসি করে রাখার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলেও শোনা যাচ্ছে।

এরআগে ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিন্তানের ক্ষতায় ছিল তালেবান গোষ্ঠী। এই পাঁচ বছরে শিক্ষাসহ মৌলিক অধীকার থেকে নারীদের বঞ্চিত করে রাখা হয়েছিল। পুরুষ সঙ্গি ছাড়া নারীদের বাইরে যাওয়ারও অনুমতি ছিল না। সামান্য অপরাধের জন্য নারীকে পাথর ছুঁড়ে হত্যার ফতোয়া জারি ছিল।

Share.

Leave A Reply