fbpx

আরিয়ানের বিপক্ষে মুখ খুলতে ১৮ কোটি টাকা অফার!

Pinterest LinkedIn Tumblr +

শাহরুখপুত্র আরিয়ানের বিপক্ষে কথা বলার জন্য নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) টাকা দিয়েছে। রবিবার(২৪ অক্টোবর) এমনই বিস্ফোরক দাবি করলেন মাদক মামলার এক সাক্ষী।

ভারতীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে এমন মন্তব্য প্রকাশ পাওয়ার সাথে সাথেই এনসিবি এটাকে ‘মিথ্যা রটনা’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। এমনকি ঠিক সময়ে এর জবাব দেবে বলেও জানিয়েছে তারা।

গত ২ অক্টোবর আরিয়ানকে গ্রেফতার করার কয়েক ঘন্টা পরই একটি লোকের সাথে আরিয়ানের একটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে। ছবিতে দেখা যায়, এক ব্যক্তি আরিয়ানের সাথে সেলফি তুলছেন। ঐ ব্যক্তির নাম কিরণ পি গোসাভি। সেসময় অনেকেই এই কিরণকে নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। লোকটি এনসিবির কেউ কিনা সেটা নিয়েও কথা ওঠে। তখন এনসিবিকে বিবৃতি দিয়ে জানাতে হয়, কিরণ তাদের কেউ নন। শুধু তাই নয়, কিরণকে এই মামলার অন্যতম সাক্ষী হিসেবে তুলে ধরে তার খোঁজ চালায় এনসিবি। কিরণ ওই ঘটনার পর থেকেই পলাতক।

আরিয়ানের বিপক্ষে মুখ খুলতে ১৮ কোটি টাকা অফার!

আরিয়ান খানের সাথে সেলফি তুলছেন কিরণ পি গোসাভি। ছবি: সংগৃহীত

 

কিরণের সহযোগী প্রভাকর সেইল জানিয়েছেন, তদন্তকারী সংস্থা তাকে ফাঁকা পঞ্চনামায় সই করিয়েছে। এমনকি এনসিবি আধিকারিক সমীর ওয়াংখেড়়ের থেকে বিপদের আশঙ্কা করছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্রভাকর দাবী করেন, কেপি গোসাভি ‘রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ’ হয়ে যাওয়ার পর থেকেই সমীর ওয়াংখেড়েকে নিয়ে এই ধরনের ভাবনা শুরু হয়েছে তার।

কেপি গোসাভির দেহরক্ষী বলে নিজের পরিচয় দিয়ে তিনি দাবি করেন, শাহরুখপুত্রের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে ১৮ কোটি টাকার চু্ক্তি হয়েছে বলে শুনেছেন।

তবে এনসিবি দাবী করছে, এমনটাই যদি হত, তাহলে আরিয়ান এতদিন জেলে বন্দী থাকেন কিভাবে? এমনকি এনসিবির দফতরে একাধিক সিসিটিভি রয়েছে। এসব যুক্তি দেখিয়ে এনসিবি এসব তথ্যকে ‘সম্পুর্ণ মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে। শাহরুখ তনয়কে যে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে, এমনটাও বলছে কেউ কেউ।

Share.

Leave A Reply