fbpx

ইমোতে যুক্ত হলো ফোন নাম্বার ভেরিফিকেশন

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

প্রযুক্তি বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তথ্য ফাঁস নতুন কোনো বিষয় নয়। তাই এ তথ্য ফাঁস এড়াতে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবারসহ নানা অ্যাপ তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নিচ্ছে নানা পদক্ষেপ। এ দৌড়ে থেমে নেই ইমো ও। এই অ্যাপটি এবার নিরাপত্তা ব্যবস্থায় যুক্ত করেছে নতুন ফোন নাম্বার ভেরিফিকেশন।

ফলে  ইমো ব্যবহারকারীদের আর তথ্য হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হওয়ার সম্ভাবনা আর থাকছে না। ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তায় ইমোর নতুন ভেরিফিকেশন সিস্টেম বিশ্বে নতুন সংযোজন।

কোনো ব্যাক্তির মোবাইল নম্বর দুই বছরের বেশি জন্য বন্ধ থাকলে টেলিকম অপারেটরেরা সেটি বন্ধ করে নতুন গ্রাহকের কাছে নম্বরটি হস্তান্তর করে। ফলে কোনো নতুন নাম্বার ব্যবহারকারী ইমোতে একাউন্ট খোলার সময় পুরনো একাউন্টের সাথে সংযুক্ত হয়ে যেতেন। এর জন্য নতুন ইউজার সেই পুরোনো একাউন্টের সব ধরনের তথ্যে সহজেই একসেস পেয়ে যেতেন। প্রায় সব ধরনের ইন্সট্যান্ট ম্যাসেজিং অ্যাপেই এ ধরনের সমস্যা দেখা গেছে, ফলে এসব অ্যাপ  ব্যবহারকারীরা নানা ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতেন।

ইমোতে যুক্ত হলো ফোন নাম্বার ভেরিফিকেশন

ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তায় ইমোর এই ভেরিফিকেশন সিস্টেম বিশ্বে নতুন সংযোজন। ছবি : সংগৃহীত

এ সমস্যা সমাধানের জন্য ইমো নিয়ে এসেছে নাম্বার ভেরিফিকেশন সিস্টেম, যাতে গ্রাহকের তথ্যের নিরাপত্তা শতভাগ নিশ্চিত করা যায়। যদি কোনো ইমো একাউন্ট নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ইন্যাক্টিভ থাকে, তাহলে যে নাম্বার দিয়ে ঐ একাউন্ট খোলা হয়েছে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে অনিবন্ধিত হয়ে যাবে। ফলে টেলিকম কোম্পানি নতুন কোনো গ্রাহককে পরিত্যাক্ত নম্বরটি দিলেও তথ্য পাচারের ঝুঁকি থাকবে না।

আর যদি মোবাইলের সঙ্গে সংযুক্ত ইমো একাউন্ট ফোন নম্বরের সঙ্গে মিল না থাকে, তবে নতুন ফোন নম্বরে পুরাতন ইমো একাউন্ট চালু রাখার ব্যাপারে গ্রাহককে সুযোগ দেওয়া হবে।

একাউন্ট সুরক্ষা এবং গোপনীয়তা রক্ষার জন্য ইমো এই নতুন পদ্ধতি চালু করেছে। বিস্তৃত সুরক্ষা পদ্ধতির জন্য ব্যবহারকারীরা যে নম্বরটি ব্যবহার করছে তার সঙ্গে ফোনে ব্যবহৃত একাউন্টটি সংযুক্ত রয়েছে কি না তা ইমো শনাক্ত করতে পারবে। আর ব্যবহারকারীর বর্তমান মোবাইল নম্বরটিতে পরিবর্তিত হওয়ার জন্য অ্যাপটিতে অনুরোধ জানানো হবে।

Advertisement
Share.

Leave A Reply