fbpx

ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর ক্ষমতার অবসানের সম্ভাবনা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ইসরায়েলে উগ্র জাতীয়তাবাদী শক্তির সাথে ডানপন্থী শক্তির সম্ভাব্য জোট গঠন জাতীয় নিরাপত্তার জন্য বিপজ্জনক হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

প্রধানমন্ত্রী ডানপন্থী রাজনীতিবিদদের আহ্বান জানিয়েছেন উগ্র-জাতীয়তাবাদী নেতাদের সাথে কোনো রকম চুক্তিতে সমর্থন না জানাতে।

উগ্র-জাতীয়তাবাদী নেতা নাফতালি বেনেট মধ্যপন্থী ইয়াইর লাপিদের সাথে আলোচনায় বসবেন এমন ঘোষণার পরই নেতানিয়াহু এই আহ্বান জানান।

নতুন জোট সরকার গঠনের জন্য বুধবার পর্যন্ত সময় হাতে পাবেন লাপিদ। এই উদ্যোগ সফল হলে টানা সর্বোচ্চ মেয়াদে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নেতানিয়াহুর অবসান ঘটবে।

১২০ আসনের পার্লামেন্টে গুরুত্বপূর্ণ ৬টি আসন পেয়েছে বেনেটের দল যা প্রস্তাবিত বিরোধী জোট গঠনে নিশ্চিত সংখ্যাগরিষ্ঠতা দিতে সক্ষম।

শনিবার রাতে, নেতানিয়াহুর লিকুদ পার্টির বেনেট ও আরো একটি সম্ভাব্য জোট দলের নেতাকে জোট গঠনের প্রস্তাব দেয়। যাতে করে পালাক্রমে তিনজনই প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন।

তবে তার সেই প্রস্তাব গ্রহণ করেননি নেতারা। রবিবারও একই প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি।

লাপিদকে সরকার গঠনের জন্য ২৮ দিন সময় দেয়া হলেও গাজায় ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলের ১১ দিনের হামলায় ওই প্রচেষ্টা বাধাগ্রস্ত হয়।

সম্ভাব্য চুক্তি অনুযায়ী ১২০ আসনের ইসরায়েলি পার্লামেন্টে মাত্র ছয় আসন নিয়েই প্রধানমন্ত্রী হতে চাইছেন বেনেট।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় আসন জোগাড়ে শেষ সময়ে এসে উগ্র জাতীয়তাবাদী বেনেটের সাথে চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন লাপিদ।

ছয়টি আসন নিয়ে ইসরায়েলে জোট সরকার গঠনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠা বেনেটের দল রোববার এই চুক্তির পক্ষে সমর্থন জানিয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, প্রাথমিক সমঝোতা অনুযায়ী দুই বছরের জন্য বেনেট ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী থাকবেন। পরে দুই বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী হবেন লাপিদ।

Share.

Leave A Reply