fbpx

ইসলামী ব্যাংকের লকার থেকে গ্রাহকের ১৫০ ভরি স্বর্ণ গায়েব

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

চট্টগ্রামের চকবাজার শাখার ইসলামী ব্যাংকের লকার থেকে ১৫০ ভরি স্বর্ণালংকার গায়েব হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার (২৯ মে) এ ঘটনা ঘটে। তবে বিষয়টি জানাজানি হয় শনিবার (১জুন)। লকার থেকে গায়েব হওয়া সোনার দাম প্রায় ১ কোটি ৭৬ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, লকার থেকে গায়েব হওয়া ১৫০ ভরি স্বর্ণালংকারের মধ্যে রয়েছে ৬০ ভরি ওজনের ৪০ পিস হাতের চুড়ি (বড় সাইজ), ২৫ ভরি ওজনের গলা ও কানের ৪ জোড়া সেট, ১০ ভরি ওজনের একটি গলার সেট, ২৮ ভরি ওজনের ৭টি গলার চেইন, ১৫ ভরি ওজনের ৪টি আংটি ও ১১ ভরি ওজনের ৩০ জোড়া কানের দুল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়ালী উদ্দিন আকবর জানান, গত ২৯ মে ইসলামী ব্যাংক চকবাজার শাখায় এ ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, চুরির খবর পেয়ে দ্রুত ইসলামী ব্যাংকের ঐ শাখায় যান তিনি। গায়েব হওয়া স্বর্ণালংকারের মালিক রোকেয়া বারী নামে এক নারী। ভুক্তভোগীকে থানায় মামলা করতে বলেছিলাম। কিন্তু পরে আসবেন বলে তিনি আজও থানায় আসেননি।

ওসি জানান, ১৭ বছর ধরে ইসলামী ব্যাংক চকবাজার শাখার লকার ব্যবহার করে আসছিলেন ভুক্তভোগী নারী রোকেয়া বারী। গত (২৯ মে) দুপুরে ব্যাংকের লকার থেকে কিছু স্বর্ণালংকার আনতে যান তিনি। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা তাকে লকার রুমের দরজা খুলে দেন। এরপর তার জন্য বরাদ্দ রাখা লকারের কাছে গিয়ে সেটি খোলা দেখতে পান রোকেয়া। এ সময় লকারে মাত্র ১১ ভরি স্বর্ণালংকার অবশিষ্ট দেখতে পান রোকেয়া। এরপর দ্রুত ঘটনাটি জানালে ঘটনাস্থলে আসেন চকবাজার থানার ওসি ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

জানা গেছে, লকার থেকে গায়েব হওয়া ১৫০ ভরি স্বর্ণালঙ্কারের মধ্যে রয়েছে ৪০ পিস হাতের চুড়ি (বড় সাইজ)। যার ওজন ৬০ ভরি। গলা ও কানের চার জোড়া অলঙ্কার। যার ওজন ২৫ ভরি। ১০ ভরি ওজনের একটি গলার চেইন। ২৮ ভরি ওজনের সাতটি চেইন। ১৫ ভরি ওজনের চারটি আংটি। ৩০ জোড়া কানের দুল। যার ওজন ১১ ভরি।

Advertisement
Share.

Leave A Reply