fbpx

আলেশা মার্টসহ ৯ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

Pinterest LinkedIn Tumblr +

আলেশা মার্ট ও ই-অরেঞ্জসহ নয়টি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ইত্যেমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এর আগে (২২ সেপ্টেম্বর) ই-কমার্স সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছিলেন, দেশের আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির মতো আর কোনো ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান যেন প্রতারণার সুযোগ না পায়, সেজন্য পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে আলেশা মার্টসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে। এ সময় প্রলোভনে না পড়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন হবার কথা বলেন মন্ত্রী।

তদন্তের আওতায় থাকা প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে:

ধামাকা, আলাদিনের প্রদীপ, বুম বুম, আদিয়ান মার্ট, সিরাজগঞ্জ শপ, কিউকুম, নিড ডটকম ডটবিডি। এই প্রতিষ্ঠানগুলোর সর্বশেষ আর্থিক অবস্থা, মোট দায় এবং প্রতিষ্ঠানের চলতি ও স্থায়ী মূলধনের তদন্ত করা হচ্ছে। এছাড়া  এর বাইরে আরও কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমের ওপর নজর রাখা হয়েছে।

এই সকল প্রতিষ্ঠানগুলোর নিরীক্ষা প্রতিবেদন চেয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেছে মন্ত্রণালয়

এদিকে  ই-কমার্সের বিজ্ঞাপনের নিচে প্রতারণা ঠেকাতে ‘অনলাইনে পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতারণা থেকে সাবধান’ এই  সর্তকবাণী লিপিবদ্ধ বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। এ বিষয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এছাড়া বিদ্যমান মানি লন্ডারিং আইনে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানকে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে বিদ্যমান আইনের সংশোধনীর কাজ শুরু করেছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তদন্তের তালিকায় রয়েছে ধামাকা। ইনভেরিয়েন্ট টেলিকম বাংলাদেশ লিমিটেডের নামে নিবন্ধন ও ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে ধামাকা নামে লোভনীয় অফার ও ভার্চুয়াল সিগনেচার কার্ড বিক্রির মাধ্যমে ব্যবসা করে আসছিল। মানুষের কাছ থেকে তারা ৮০৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়, যার একটি অংশ পাচার করা হয়। এজন্য ৯ সেপ্টেম্বর ৫ জনের বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

Share.

Leave A Reply