fbpx
BBS_AD_BBSBAN
২১শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ৮ই ফাল্গুন ১৪৩০ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

ঋতুপর্ণা-তহুরার জোড়া গোলে সিঙ্গাপুরকে ৮-০ ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশ

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

ফিফা প্রীতি ম্যাচে র‌্যাঙ্কিংয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে থাকা সিঙ্গাপুরকে ৮-০  গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে  সিঙ্গাপুরকে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। সাবিনা খাতুন, সানজিদা আক্তার, সুমাইয়া মাৎসুশিমা ও শামসুন্নাহার জুনিয়র একটি করে গোল।

এদিন সিঙ্গাপুর একাদশে পরিবর্তন আনলেও বাংলাদেশ দল মাঠে নেমেছিল অপরিবর্তিত। শুরু থেকেই আক্রমণাত্বক খেলে সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা। শুরুর পনেরো মিনিটে সুযোগ হাতছাড়া করলেও বেশি সময় নেয়নি স্বাগতিকরা। ম্যাচের ১৬ মিনিটেই লিড নেয় বাংলাদেশ। ডান দিকে বক্সের মাথা থেকে সাবিনার ফ্রি-কিক থেকে আফিদার ভলি যায় মাসুরার সামনে। তিনি হেড নিলে বল যায় তহুরার কাছে। প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করা তহুরা খাতুন সুযোগ মিস করেননি। হেডে বল জড়িয়ে দেয় জালে।

পরের মিনিটেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রিতুপর্না চাকমা। সাবিনার কর্নার পোস্টের সামনে থেকে ক্লিয়ারের চেষ্টা করেছিলেন সিঙ্গাপুরের ডিফেন্ডার ডরকাস চু। বল পেয়ে যান রিতুপর্না। তিনি বা পায়ের আলতো টোকায় বল পাঠান জালে। ২৪ মিনিটে বাংলাদেশ স্কোরলাইন ৩-০ করে। দলের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন তাহুরা।

৩-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।বিরতির পর বাংলাদেশ ব্যবধান ৪-০ করে ৫৭ মিনিটে। বাঁ দিক দিয়ে  রিতুপর্না বল নিয়ে ঢুকে পাস দিয়েছিলেন তহুরাকে। তহুরার শট ঠেকিয়ে দিয়েছিলেন সিঙ্গাপুরের গোলরক্ষক। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। বল সানজিদার কাছে গেলে প্লেসিংয়ে গোল করেন তিনি।

দলের পঞ্চম গোলটিও করেন রিতুপর্না চাকমা। মনিকা চাকমা বাড়ানো বল ধরে বাম দিক দিয়ে দুই খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বা পায়ের ভলিতে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন রিতুপর্না। ৭৫ মিনিটে দলের ষষ্ঠ গোল করেন সাবিনা খাতুন। সবশেষ ইনজুরি সময়ে সিঙ্গাপুরের জালে অষ্টমবারের মত বল জড়ান শামসুন্নাহার।

এতে করে দুই ম্যাচ সিরিজ জিতলো ২-০ ব্যবধানে স্বাগতিকরা। এর আগে সিঙ্গাপুরকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল সাবিনারা।

Advertisement
Share.

Leave A Reply