fbpx

এবারও হচ্ছে না আয়কর মেলা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

গতবারের মতো এ বছরও হচ্ছে না আয়কর মেলা। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মেলা না হলেও গতবারের মতো পুরো নভেম্বর মাস জুড়ে করদাতাদের সেবা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এনবিআর চেয়ারম্যান ও আভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আবু হেনা মু. রহমাতুল মুনিম।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এক সংবাদ সম্মেলনে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান তিনি।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘মহামারীর কারণে সরাসরি কর মেলা করতে না পারলেও ১ থেকে ৩০ নভেম্বর পুরো মাসব্যাপী কর সংস্কৃতির বিকাশ, করদাতাদের সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কর সেবা প্রদান করা হবে। দেশব্যাপী ৩১টি কর অঞ্চলের ৬৪৯টি সার্কেলে অফিস চলাকালীন সময়ে নিরবচ্ছিন্নভাবে আয়কর রিটার্ন গ্রহণ করা হবে। একইসঙ্গে রিটার্ন দাখিল করা করদাতাদের তাৎক্ষণিক প্রাপ্তি স্বীকারপত্রও দেওয়া হবে।’

তিনি জানান, ‘সরকারি কর্মকর্তাদের রিটার্ন দাখিলের সুবিধার জন্য ১ থেকে ১৪ নভেম্বর বাংলাদেশ সচিবালয় ও অফিসার্স ক্লাবে রিটার্ন গ্রহণ বুথ ও হেল্প ডেস্ক থাকবে। সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যদের জন্য ঢাকা সেনানিবাসের সেনা মালঞ্চে ৯ ও ১০ নভেম্বর দুই দিন রিটার্ন গ্রহণ ও কর বিষয়ে যাবতীয় তথ্য সেবা দেওয়া হবে।’

নভেম্বর মাস জুড়ে কর সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে বেশ কিছু কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে জানিয়ে রহমাতুল মুনিম বলেন, ‘সেবাকেন্দ্রগুলোতে ইলেক্ট্রনিক ট্যাক্স আইডেনটিফিকেশন নম্বর (ইটিআইএন) নিবন্ধন ও পুনঃনিবন্ধনের ব্যবস্থা রাখা হবে। প্রত্যেক কর অঞ্চলের ওয়েবসাইটে আয়কর সংক্রান্ত বিভিন্ন ফরম, পরিপত্র, রিটার্ন পূরণের নির্দেশিকাসহ প্রয়োজনীয় তথ্য সেবা রাখা হয়েছে এর মধ্যে।’

৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস উদযাপন করা হবে জানিয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘নভেম্বর মাসব্যাপী করসেবা উপলক্ষে ২৪ নভেম্বর ১৪১ জন সর্বোচ্চ করদাতাকে ট্যাক্স কার্ড দেওয়া হবে। জেলা ও সিটি কর্পোরেশন পর্যায়ে ৬৬৬ জন সেরা করদাতাকে ক্রেস্ট, পরিচিত ও সম্মাননা সনদ দেওয়া হবে।’

 

Share.

Leave A Reply