fbpx

ওয়ার্নারের ব্যাটে অস্ট্রেলিয়ার লঙ্কা বধ!

Pinterest LinkedIn Tumblr +

বাংলাদেশের বিপক্ষে দলে ছিলেন না দু’জনের কেউই। বিশ্বকাপে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের থাকা নিয়েও ছিল সংশয়, ডেভিড ওয়ার্নারের ফর্ম নিয়ে ছিল শঙ্কা। নিজেদের প্রথম ম্যাচেও রানের দেখা পাননি দুই ওপেনার। তাতে কি! লঙ্কানদের বিপক্ষে ঠিকই ফিরেছেন স্বমহিমায়। প্রথম ছয় ওভারেই দলকে এনে দিয়েছেন ৬৩ রান। ২১ বলে ৩৭* রানে অপরাজিত ফিঞ্চ, ওয়ার্নারের সংগ্রহ ২৫*।

ওয়ার্নারের ব্যাটে অস্ট্রেলিয়ার লঙ্কা বধ!

দু’জনে মিলে গড়েছেন ৭০ রানের জুটি।

এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১৫৪ রান স্কোরবোর্ডে তোলে শ্রীলঙ্কা। শুরুতেই উইকেট হারানো লঙ্কানরা ম্যাচে দুর্দান্তভাবে ফিরে আসে কুশল পেরেরা এবং চারিথ আশালঙ্কার ৬৩ রানের জুটিতে। বড় সংগ্রহের লক্ষ্যে ঠিকমতোই এগোচ্ছিল দুই ব্যাটসম্যান। কিন্তু দশ থেকে তেরো, টানা এই চার ওভারে চারটি উইকেট নিয়ে অজিদের ম্যাচে ফেরান অ্যাডাম জাম্পা-মিচেল স্টার্ক। সেখান থেকে লঙ্কানরা দেড়শ পেরিয়েছে ভানুকা রাজাপাকসের অপরাজিত ৩৩* রানের কল্যাণে। মাত্র বারো রানে দুইটি উইকেট নিয়েছেন জাম্পা, সমান দুইটি উইকেট নিতে স্টার্ক খরচ করেছেন সাতাশ রান।

ওয়ার্নারের ব্যাটে অস্ট্রেলিয়ার লঙ্কা বধ!

রাজাপাকসের ব্যাটে ভর করেই দেড়শ পেরিয়েছে লঙ্কানরা।

১৫৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলকে দুর্দান্ত শুরু এনে দিয়েছেন দুই ওপেনার। প্রথম ছয় ওভারেই স্কোরবোর্ডে বিনা উইকেটে ৬৩! সেখান থেকে ছন্দপতন ব্যাটিং লাইনআপে; ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার টানা দুই ওভারে প্যাভিলিয়নের পথে অজি অধিনায়ক এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ফিঞ্চ ৩৭ রান করলেও ম্যাক্সওয়েলের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৫ রান।

টানা দুই উইকেট হারানো অস্ট্রেলিয়াকে পথ দেখিয়েছেন স্টিভ স্মিথ-ডেভিড ওয়ার্নার। দলকে জয় থেকে ২৫ রান দূরে রেখে ৬৫ রানে অজি ওপেনার ফিরলেও, অপরাজিত থেকেই মাঠ ছেড়েছেন স্মিথ। ওয়ার্নার তুলে নিয়েছেন নিজের উনিশতম অর্ধশতক। স্মিথ অপরাজিত ছিলেন ২৮* রানে। মার্কাস স্টয়নিসের ব্যাট থেকে এসেছে ১৬* রান; ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা নিয়েছেন ২২ রানে ২ উইকেট।

Share.

Leave A Reply