fbpx
BBS_AD_BBSBAN
৫ই ডিসেম্বর ২০২২ | ২০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

শতভাগ আশাব্যঞ্জক, দাবি মডার্নার

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

করোনা টিকার উদ্ভাবনের দৌড়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার ও মডার্না এগিয়ে রয়েছে। সম্প্রতি ফাইজার তাদের কোভিড-১৯ টিকার পর্যাপ্ত সুরক্ষা ও নিরাপত্তা তথ্য একত্র করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এ্যান্ড ড্রাগ প্রশাসন (এফডিএ) থেকে তারা টিকাটি জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের জন্য আবেদন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

মঙ্গলবার প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) অ্যালবার্ট বোরলা এ তথ্য জানান। মার্কিন ওষুধ কোম্পানি ফাইজার জানায়, তাদের টিকা করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে ৯০ শতাংশ সুরক্ষা প্রদান করতে পারবে। এ সময় নিউইয়র্ক টাইমসের দেয়া একটি সাক্ষাৎতকারে বোরলা বলেন, তারা এফডিএর কাছে অনুমোদন পাওয়ার আগে যথেষ্ট সুরক্ষা তথ্য পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করবে।

যুক্তরাষ্ট্রের আরেক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি মডার্না তাদের করোনা টিকার তৃতীয় ধাপের প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশ করেছে। তাদের দাবী, টিকা পরীক্ষার প্রাথমিক ফলাফলে কার্যকারিতা দেখা গেছে ৯৪ দশমিক ৫ শতাংশ। মডার্নার পক্ষ থেকেও টিকাটির জরুরি ব্যবহারের জন্য আবেদন করা হবে নভেম্বরের শেষ দিকে।

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ এ্যান্টনি ফাউসি সিএনএন কে এ সপ্তাহে বলেছেন, এফডিএ উভয় আবেদন একসাথে বিবেচনা করার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে হয়। ফাউসি বলেন, নিউইয়র্কের নাগরিকেরা ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে টিকা পেতে শুরু করেন।

এদিকে মডার্না এবছরই যুক্তরাষ্ট্রে দুই কোটি ডোজ টিকা উৎপাদনের আশা করছে। প্রতিষ্ঠানটি ইতিমধ্যেই কয়েক লাখ টিকা তৈরি করে ফেলেছে। এফডিএ এর অনুমোদন পেলেই তারা টিকা সরবরাহ শুরু করবে। মডার্না টিকার একটি বিশেষ সুবিধা হলো, এর সংরক্ষনের জন্য আল্ট্রা-কোল্ড স্টোরেজের প্রয়োজন পড়বে না। যা দরকার পড়বে ফাইজারের টিকার ক্ষেত্রে। ফাইজারের টিকা সংরক্ষণের কাজ কঠিন। এটি মাইনাস ৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হয়। রেফ্রিজারেটরের তাপমাত্রায় মাত্র ৫ দিন এটি সংরক্ষণ করা যাবে। যেখানে মডার্নার টিকা রেফ্রিজারেটরের তাপমাত্রায় ৩০ দিন রাখা যাবে, তাও মাত্র ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায়। আর ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ৬ মাস পর্যন্ত তাদের টিকা সংরক্ষণ করা যাবে। ফলে ফাইজারের চেয়ে মডার্নার টিকা সরবরাহ করাই উত্তম।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের এক তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে সবচেয়ে বেশী ভুক্তভোগী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো যুক্তরাষ্ট্র। ধারণা করা হচ্ছে, স্বাস্থ্যসেবা খাতের কর্মীদের পাশাপাশি বয়স্ক লোকজন, জরুরী কাজে নিয়াজিত কর্মী, পুলিশ ও যাঁদের শারীরিক সমস্যা রয়েছে তাঁরা আগে এই টিকা পাবেন।

Advertisement
Share.

Leave A Reply