fbpx

করোনা সংক্রমিত হলে যেসব খাবার খাওয়া বারণ

Pinterest LinkedIn Tumblr +

করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। আর যারা একবার করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। সে কারণেই চিকিৎসকেরা এই সময়ে পুষ্টিকর খাবার-দাবারের প্রতি নজর দিতে বলছেন। করোনা সংক্রমণের সময় শরীর অনেকটা দুর্বল হয়ে পড়ে। তাই, যথেষ্ট  পুষ্টিকর খাবাররের প্রয়োজন রয়েছে। প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য প্রয়োজন কিছু বিশেষ ধরনের খাবার। তবে এ কথাও খেয়াল রাখতে হবে যে, কোভিডে আক্রান্ত হলে কিছু খাবার একেবারেই খাওয়া যাবে না। কারণ, রোগ প্রতিরোধের শক্তি কম থাকলে অনেক খাবার অন্য অসুস্থতাও ডেকে আনতে পারে।

তাহলে, আসুন জেনে নেই কী খাবার একেবারেই খাওয়া যাবে না এ সময়ে-

১। এ সময়ে বেশি তেল বা মশলা দেওয়া রান্না খেলে গলায় জ্বালা ভাব হতে পারে। কাশিও বাড়তে পারে। ফলে ঝাল বা ঝাঁঝ যে সব মশলায় বেশি, তা না খাওয়াই ভাল। যেমন শুকনো লঙ্কা, গোল মরিচ। আর তাছড়া অতিরিক্ত মশলা খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা দেখা দিতে পারে। এতে সুস্থতার পরিবর্তে আপনি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। এ সময় হালকা খাবার, কম তেলে রান্না খাবার শরীরের জন্য ভালো হবে।

২। সুস্থ হয়ে ওঠার সময়ে জিভে স্বাদ ফিরতে শুরু করে, তখন ভাজা বা বেশি তেল-মশলা দেওয়া খাবার খেতে ইচ্ছা করতে পারে। কিন্তু এ সব খাবার হজম হতে সময় নেয়। অন্যদিকে করোনায় কমে যায় প্রতিরোধ শক্তি। তার উপরে অসুস্থার কারণে হাঁটাচলাও কম হয়। ফলে হজমের সমস্যা হতে পারে। আর ভাজাভুজি এমনিতেও শরীরের  জন্য ভালো নয়। ভাজাভুজি যতটা পারবেন এড়িয়ে চলবেন।

৩। এ সময় বেশি করে পানি পান করতে বলছেন চিকিৎসকেরা। কিন্তু কেউ যদি মনে করেন বোতলজাতীয় পানীয় পান করলেই আপনার শরীরে পানির চাহিদা মিটবে, তাহলে আপনি ভুল ভাবছেন। বোতলবন্দি ঠান্ডা পানীয় খাওয়া একেবারেই চলবে না। এই সব পানীয়ে অত্যধিক পরিমাণ চিনি দেওয়া থাকে যা মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়।

তাই করোনা আক্রান্ত হলে খাওয়া-দাওয়া করতে হবে পর্যাপ্ত। আপনি যটতা নিজেকে যত্নে রাখবেন, পরবর্তীতে সেটার ঠিক তেমনটাই ফল পাবেন।

Share.

Leave A Reply