fbpx

কিম কি দুকের মৃত্যু

Pinterest LinkedIn Tumblr +

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন দক্ষিণ কোরিয়ার বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক কিম কি দুক। তিনি এসময় ইউরোপের লাটভিয়ায় অবস্থান করছিলেন। লাটভিয়ার সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায়,  ১১ ডিসেম্বর স্থানীয় সময় রাতে তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

ডেলফি নিউজের তথ্য অনুযায়ী, কান, বার্লিন, ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে অংশগ্রহণের পর তিনি ২০ নভেম্বর থেকে লাটভিয়াতে অবস্থান করছিলেন। আজ শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) সেখানেই তিনি মারা যান।

ডেলফি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, তিনি জারমালাতে একটি বাড়ি কেনার কথা ভাবছিলেন। এবং এর জন্য দরকার ছিল রেসিডেন্স পারমিট। কিন্তু সময়মতো তার ব্যবস্থা করা যায়নি।

করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে তিনি স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

কিম কি দুক ১৯৬০ সালের ২০শে ডিসেম্বর দক্ষিণ কোরিয়ার বোংঘোয়ায় জন্মগ্রহণ করেন । ১৯৯০ থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত প্যারিসে  ফাইন আর্টস বিষয়ে পড়াশোনা করেন। এরপর নিজ দেশ দক্ষিণ কোরিয়াতে এসে শুরু করেন চিত্রনাট্য লেখার কাজ এবং ১৯৯৫ সালে কোরিয়ান ফিল্ম কাউন্সিল কর্তৃক আয়োজিত এক প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার পান। পরের বছর তিনি ‘ক্রোকোডাইল’ নামে একটি স্বল্প বাজেটের চলচ্চিত্র পরিচালনা করেন।

২০০০ সালে তার চলচ্চিত্র ‘রিয়াল ফিকশন’ ২৩ তম মস্কো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জায়গা করে নেয়। ২০০৪ সালে বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘সামরিটান গার্ল’ চলচ্চিত্রের জন্য সেরা পরিচালকের সম্মানে ভূষিত হন তিনি। ২০১২ সালে ‘পিয়েটা’ নামে তাঁর চলচ্চিত্র ভেনিস, বার্লিন ও কান চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের সম্মান লাভ করে এবং ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোল্ডেল লায়ন’ পুরস্কার লাভ করেন।

কিম কি দুকের বিখ্যাত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে, ‘সামরিটান গার্ল’, ‘ওয়াইল্ড এনিমেল’, ‘বার্ডকেজ ইন’, ‘থ্রি আই’রিয়েল ফিকশন’, ‘অ্যাড্রেস  আননোন’, ‘ব্যাড গাই’, ‘দ্য কোস্ট গাই’, ‘পিয়েটা’ ‘ওয়ান অন ওয়ান’ সহ আরও অনেক বিখ্যাত সব সিনেমা।

কিম কি দুক। ছবি : সংগৃহীত

Share.

Leave A Reply