fbpx

‘কোনো রকম অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে দেব না’

Pinterest LinkedIn Tumblr +

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান, কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে চার জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের একজন আবু বকর, আর অন্যজন নাহিদ। আর এদের দু’জনের তথ্যের ভিত্তিতে আরা দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রবিবার (৬ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খান এ সময় হেফাজতে ইসলামের কোন নেতার নাম উল্লেখ না করে বলেন, “বঙ্গবন্ধু জাতির পিতা, তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি। বাংলাদেশের কোনো মানুষই মেনে নিতে পারবে না যে তাঁর স্মৃতি ধরে রাখা যাবে না।”

তিনি বলেন, “ভাস্কর্য মানেই পূজা নয়, কারো স্মৃতিকে ধরে রাখা। তাঁর যে অবদান দেশের প্রতি, জাতির প্রতি, সেটাকে হৃদয় দিয়ে ধারণ করা।”

হেফাজতের নেতারা হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন যে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন করতে দেয়া হবে না , এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের মতামত কি জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমরা যারা শান্তিরক্ষায় নিয়োজিত আছি, এইটুকু বলতে পারি, আমরা কোনো ধরনের অরাজকতা বাংলাদেশে করতে দেব না। অরাজকতা, ভাঙচুর কোনো রকম অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে দেব না।”

দেশের বিভিন্ন স্থানে স্থাপিত ভাস্কর্যের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে বলে সাংবাদিকদের বলেন আসাদুজ্জামান খান।

তিনি জানান, ভাস্কর্য ভাঙচুরের সাথে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতারকৃত ৪ জনকে স্থানীয় ইবনে মাসউদ মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

Share.

Leave A Reply