fbpx

খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠাতে চলছে বিএনপির অনশন

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ নেয়ার দাবিতে অনশনে বসেছে দলটির নেতা-কর্মীরা। রাজধানীসহ সারাদেশে শনিবার (২০ নভেম্বর) সকাল ৯টা থেকে শুরু হওয়া এই অনশন চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতারা অনশন চালাচ্ছেন। সেখানে উপস্থিত আছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, মঈন খান, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানুল্লাহ আমান, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসসহ শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের অনেকে।

অনশন কর্মসূচি থেকে সহিংসতা না ছড়াতে নেতা-কর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি বার বার বলছি, এটি একটি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি। আপনাদের আহ্বান জানাচ্ছি, বিকেল ৪টা পর্যন্ত যে যেখানে বসে আছেন সেখানে বসে শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি সম্পন্ন করবেন।’

এদিকে অনশনকে ঘিরে বেশ সতর্ক আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। যেখানে অনশন চলছে তার দুই পাশে এবং পাশের রাস্তার উল্টো পাশে-এই তিন পয়েন্টে পুলিশের বিপুল সংখ্যক সদস্যের অবস্থান রয়েছে। জল কামান, কয়েকটি প্রিজন ভ্যানও সেখানে দেখা গেছে।

গত ১৩ নভেম্বর বিকেলে খালেদা জিয়াকে ফিরোজা থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হওয়ায় পরের দিন ভোরে তাকে সিসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসা চলছে তার।

বেগম জিয়ার জীবন বাঁচাতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তবে তাকে বিদেশ পাঠানোর কোনো সুযোগ নেই, জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়ার করা আবেদনটি ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা অনুযায়ী আগেই নিষ্পত্তি হয়ে যাওয়ায় তাকে বিদেশ যেতে অনুমতি দেয়ার আইনি কোনো সুযোগ নেই।

বৃহস্পতিবার বিকেলে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরিস্থিতি তুলে ধরে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি। সেখানে শনিবার অনশনে বসার ঘোষণা দেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেয়া হবে না, এটা অমানবিক। আমরা অনতিবিলম্বে তার জীবন রক্ষার জন্য, বিদেশে চিকিৎসা গ্রহণের ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে আগামী ২০ নভেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে এবং সারা দেশে মহানগর ও জেলা পর্যায়ে গণ-অনশন পালনে আমি সবাইকে আহবান জানাচ্ছি।’

এদিকে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অবস্থা অপরিবর্তিত বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির একজন চিকিৎসক।

চিকিৎসক জানান, বেগম জিয়ার একটি হাত বেঁকে গেছে। তিনি সবার সাথে কথা বলতে চাচ্ছেন। কিন্ত তার কথা অস্পষ্ট। বেশি বয়স ও প্রচণ্ড অসুস্থ থাকার কারণে এটি হতে পারে বলে জানান বেগম খালেদা জিয়ার এক চিকিৎসক।

Advertisement
Share.

Leave A Reply