fbpx

চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এসে এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ একই পরিবারের ৪ জন

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় এসি বিস্ফোরণে একই পরিবারের নারী ও শিশুসহ চারজন দগ্ধ হয়েছেন।

সোমবার (১০ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বসুন্ধরা এ ব্লকের একটি বাসার নিচতলার ফ্ল্যাটে এই ঘটনা ঘটে। পরে তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা হয়। বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন।

দগ্ধরা হলেন, রুকসি আক্তার (২০), তার বোন ফুতু আক্তার (১৮), তার ছেলে আয়ান (৩) ও রুকসির বাবা আব্দুল মান্নান (৬০)। তারা কক্সবাজার থেকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এসে ওই ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সহকারী পুলিশ কমিশনার রাজন কুমার সাহা বলেন, “এসি থেকে বিস্ফোরণ হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঢাকায় এভারকেয়ার হাসপাতালে এই পরিবারের একজনের চিকিৎসা চলছে কিছুদিন ধরে। এজন্য তারা ঢাকায় এসে বাসা ভাড়া নিয়েছিল।”

তাদেরকে নিয়ে আসা আব্দুল মান্নানের আত্মীয় আহমেদ মোস্তফা বলেন, “ রুকসির ব্রেইন টিউমার হয়েছিল, গত ৬ তারিখ এভারকেয়ারে তার অপারেশন হয়। ঢাকায় তেমন কোন আত্মীয় না থাকায় এভার কেয়ার হসপিটালের পিছনে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসা ভাড়া নেওয়া হয়। ওই বাসা থেকে নিয়মিত এভার কেয়ার হাসপাতালে আমার ভাবিকে ডাক্তার দেখানো হতো।

তিনি আরো বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় বিদুৎ চলে যায়। রুমে এসি চালানো ছিল। পরে আবার বিদুৎ আসার পর বিষ্ফোরণের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. তরিকুল ইসলাম জানান, দগ্ধদের মধ্যে রকসি আক্তারে ৫৫ শতাংশ, ফুতুর ৫৫ শতাংশ, শিশু আয়ানের ৭০ শতাংশ ও আব্দুল মান্নানের ৫০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তারা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন। তাদের সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।

Advertisement
Share.

Leave A Reply