fbpx

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ক্যামফারের ‘ডাবল হ্যাটট্রিক’

Pinterest LinkedIn Tumblr +

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচের দশম ওভারে বল করতে এসে টানা চার বলে চারটি উইকেট তুলে নিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় বোলার হিসেবে ‘ডাবল হ্যাটট্রিক’ করলেন আয়ারল্যান্ডের কার্টিস ক্যামফার। আইরিশ পেসার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে নিজের পঞ্চম এবং বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচেই গড়লেন অনন্য এই রেকর্ড।

দশম ওভারে বল করতে এসে শুরুটাই করেছেন ওয়াইড দিয়ে। পরের বলটায় কোনো রান নিতে পারলেন না কলিন অ্যাকারমেন। এরপরেই ক্যামফারের বোলিং তান্ডবের শুরু; টানা চার বলে তুলে নিলেন নেদারল্যান্ডসের চার ব্যাটসম্যানের উইকেট। শুরুটাও অ্যাকারমেনকে দিয়েই; উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন ডাচ ব্যাটসম্যান। তার আগে হয়েছে নাটকীয়তাও। আম্পায়ার যে দেননি আউটটাই! উইকেটকিপার নিল রকের আবেদনে বাধ্য হয়েই রিভিউয়ের আশ্রয় নিতে হয়েছে আইরিশ অধিনায়ককে। আর তাতেই এসেছে প্রথম উইকেট।

ক্যামফারের চারে চার
এরপর একে একে ফিরিয়েছেন রায়ান টেন ডেসকাট, স্কট এডওয়ার্ডস, ভ্যান ডার মারওয়াকে। ম্যাচটা হতে পারতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দুই বছর পর খেলতে নামা ডেসকাটের। কিন্তু, সবকিছু ছাপিয়ে পাদপ্রদীপের সবটুকু আলো কেড়ে নিলেন ক্যামফার। অ্যাকারমেনের পরের বলেই আইরিশ পেসারের বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার ডেসকাট। পরের বলেই এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নের পথে এডওয়ার্ডসও; ব্রেট লির পর দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ক্যামফারের হ্যাটট্রিক।

হ্যাটট্রিক করেই থামেননি আইরিশ পেসার; পরের বলেই বোল্ড করলেন ভ্যান ডার মারওয়াকে। ছুঁয়ে ফেললেন লাসিথ মালিঙ্গার ডাবল হ্যাটট্রিকের রেকর্ডটাও। বিনা উইকেটে ১২ রান দিয়ে শুরু করা ক্যামফারের ওভার শেষে বোলিং ফিগার ৪/১৩! এরপর আরো দুই ওভার বল করেছেন ক্যামফার; নিজের বাকি দুই ওভারের বোলিংয়ে আর কোনো উইকেট পাননি আইরিশ পেসার। চার ওভারের বোলিংয়ে উইকেট ঐ চারটিই, খরচ করেছেন ২৬ রান।

Share.

Leave A Reply