fbpx

তরঙ্গ নিলামে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে গ্রামীণফোন-রবি

Pinterest LinkedIn Tumblr +

রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে চলছে তরঙ্গ বরাদ্দের নিলাম। শেষ মুহূর্তে এ নিলামে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণফোন ও রবি। ২১০০ মেগাহার্টজের তরঙ্গ কিনতেই তারা এ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

সোমবার (৮ মার্চ) সকাল ১১ টা থেকে এ নিলাম শুরু হয়। এখানে দেশের চারটি মোবাইল অপারেটর এ নিলামে অংশ নেয়।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযাগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদারসহ অপারেটর প্রতিষ্ঠানগুলোর নির্বাহী কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। বিটিআরসি স্পেকট্রাম বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শহিদুল আলম এ নিলাম পরিচালনা করেন।

নিলামের শুরুতে কমিশনের স্পেকট্রাম বিভাগের কমিশনার এ কে এম শহীদুজ্জামান বলেন, ১৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের ৭ দশমিক ৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গ মোট পাঁচটি ব্লকে নিলাম প্রক্রিয়া প্রথমে শুরু করা হবে। এর মধ্যে দশমিক ৪৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গে দুটি এবং ২ দশমিক ২ মেগাহার্টজ তরঙ্গে তিনটি – মোট পাঁচটি ব্লকে এ নিলাম হবে।

এর মধ্যে দুটি ব্লকের বেশি কেউ নিতে পারবে না উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ১৫ বছরের জন্য এ তরঙ্গ বরাদ্দ দেওয়া হবে। নিলামের ভিত্তিমূল্য ২০১৮ সালের ভিত্তিমূল্য অনুযায়ী ৩১ মিলিয়ন ডলার রাখা হয়েছে।

আর ২১০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডে ২০ মেগাহার্টজ ব্যবহারযোগ্য তরঙ্গ ৫ মেগাহার্টজ করে মোট চারটি ব্লকে নিলাম করা হবে। এর ভিত্তিমূল্য হবে ২০১৮ সালের নিলামের ভিত্তিমূল্য অনুযায়ী ২৭ মিলিয়ন ডলার হবে বলেও জানান বিটিআরসির এই কর্মকর্তা।

নিলামের শর্ত অনুযায়ী, কোনো অপারেটর যদি ১৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের নিলামে অংশ না নেয়, তাহলে তাকে ২১০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের নিলামে অংশ নিতে দেওয়া হবে না। আর কোনো ব্লকে গিয়ে টাই হয়ে গেলে একই পরিমাণ ব্লক থাকলে তা দুই কোম্পানিকে দিয়ে দেওয়া হবে। না হলে তৃতীয় ধাপে আবার নিলামের ডাক উঠবে বলেও জানান শহীদুজ্জামান।

দিনের মাঝামাঝি সময়ে ১৮০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গে সব কয়টি ব্লক এবং ২১০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গে তিনটি ব্লক বিক্রি হয়ে যায়। এখন একই মেগাহার্টজে শেষ একটি ব্লক নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণফোন ও রবি।

সোমবার সকালে ১৮০০ ব্যান্ডের তরঙ্গ বরাদ্দের মধ্য দিয়ে শুরু হয় নিলাম। এই ব্যান্ড দিয়ে একসঙ্গে অনেক গ্রাহককে সেবা দেওয়া যায়। এখান থেকে বাংলালিংক ৪ দশমিক ৪, রবি ২ দশমিক ৬ ও গ্রামীণফোন দশমিক ৪ মেগাহার্জ তরঙ্গ কেনে।

সরকারের এই ১৮০০ ব্যান্ড থেকে আয় হয়েছে ১ হাজার ৯৫০ কোটি টাকা। অপারেটরগুলো এ টাকা কিস্তিতে পরিশোধ করবে। তবে ২৫ শতাংশ টাকা দিয়ে তাদের তরঙ্গ বরাদ্দ নিতে হবে।

অন্যদিকে ২১০০ ব্যান্ডের তরঙ্গ দিয়ে একসঙ্গে বেশি এলাকায় সেবা দেওয়া যায়। এ ব্যান্ড থেকে নিলামের শুরুতে গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংক ৫ মেগাহার্জ করে তরঙ্গ নেয়। যার মূল্য দাঁড়ায় মেগাহার্জ প্রতি ২ কোটি ৯০ লাখ ডলার।

বিটিআরসি ২০১৮ সালে সর্বশেষ তরঙ্গ নিলাম করে। নিলাম শেষে তখন গ্রামীণফোনের তরঙ্গের পরিমাণ ছিল ৩৭ মেগাহার্জ। রবির তরঙ্গ দাঁড়ায় ৩৬ দশমিক ৪ মেগাহার্জ, বাংলালিংকের তরঙ্গ ৩০ দশমিক ৬ মেগাহার্জ এবং টেলিটকের তরঙ্গ ছিল ২৫ দশমিক ২ মেগাহার্জ। এ নিয়ে সব অপারেটরদের কাছে তরঙ্গ বরাদ্দ আছে ১২৯ দশমিক ২ মেগাহার্জ।

Share.

Leave A Reply