fbpx

দশ জনের পোর্তোর সাথে জিতেও বাদ রোনালদোর জুভেন্টাস

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলো থেকে টানা দ্বিতীয়বার বাদ পরলো জুভেন্টাস। মঙ্গলবার পর্তুগালের এফসি পোর্তোর সাথে ৩-২ গোলে জিতেও গোল অ্যাগ্রিগেটে বাদ পরেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দল। প্রথম লেগ পোর্তো ২-১ গোলে জেতায় ৪-৪ অ্যাগ্রিগেটে অ্যাওয়ে গোলের হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে এফসি পোর্তো।

এক গোলে জিতলেই কোয়ার্টার ফাইনাল, এই হিসাব যখন মাথায় থাকবে; তখন চাপও কম থাকার কথা। কিন্তু পোর্তোর বিপক্ষে জুভেন্টাসের ফুটবলারদের মধ্যে শুরুতেই চাপ দেখা গেছে। সেই চাপ আরও বেড়েছে, যখন দ্বিতীয় মিনিটেই আলভারো মোরাতার দারুণ হেড পোর্তো গোলরক্ষক বাঁচিয়েছেন এবং সফরকারীদের ফরোয়ার্ড মেহদি তেরেমির হেড জুভেন্টাসের ক্রসবারে লেগেছে।

চাপ থেকে বের হতে গিয়ে উল্টো ভুল করে বসে রোনালদোদের ডিফেন্স। মেহদি তেরেমিকে ডিবক্সে ফাউল করেন জুভেন্টাসের তার্কিশ ডিফেন্ডার মেরিহ ডেমিরাল। পেনাল্টি থেকে পোর্তোকে কোয়ার্টারে যাবার হাফ টিকিট পাইয়ে দেন সের্জিও অলিভিয়েরা, এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় এফসি পোর্তো।

দশ জনের পোর্তোর সাথে জিতেও বাদ রোনালদোর জুভেন্টাস

ছবি: টুইটার

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকেই মাঝমাঠ থেকে বাড়ানো এরিয়াল বল দারুণ দক্ষতায় ডিবক্সের ভেতরে, বাঁ-দিকে নিয়ন্ত্রণে নেন রোনালদো। সবাইকে চমকে দিয়ে ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড ফেদেরিকো চিয়েসাকে রীতিমতো আঙ্গুল দিয়ে বল দেখিয়ে শট নিতে বলেন, জায়গা করে দেন সিআর স্যাভেন। কোনাকুনি শটে সমতা ফেরান চিয়েসা।

গোল খাওয়ার মিনিট পাঁচেক পরেই দ্বিতীয় হলুদ কার্ডে মাঠে ছাড়েন পোর্তোর মেহদি তেরেমি। তার ঠিক দশ মিনিট পর দশ জনের পোর্তোর সাথে দ্বিতীয় গোল করেন ফেদেরিকো চিয়েসা। রাইট উইং থেকে হুয়ান কুয়াদ্রাদোর ক্রসে হেড করে গোল করেন চিয়েসা, ম্যাচের স্কোরলাইন ২-১। নির্ধারিত সময়েই ম্যাচটা জিততে পারতো জুভেন্টাস, যদি না ৯৩ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে নেয়া কুয়াদ্রাদ্রোর শট ক্রসবারে বাধা পেতো।
অতিরিক্ত সময়ে দশ জনের পোর্তোই সমতায় ফেরা। পেনাল্টির পর ফি কিক থেকে গোল করেন সের্জিও অলিভিয়েরা। দলকে সমতায় ফেরাতে অলিভেয়ারার কৃতিত্ব যতোটা, তারচেয়ে বেশি দায় জুভেন্টাস গোল রক্ষক ওজিয়েক সেজনির। মাটি কামড়ানো ফ্রি কিকে গোল পোস্ট কাভার করে, বলে হাত লাগিয়েও গোল বাঁচাতে পারেননি, ম্যাচের বাকি তখন ৫ মিনিট।

ঠিক দুই মিনিট পরেই বাম প্রান্ত থেকে নেয়া কর্নারে হেড করে জুভেন্টাসকে আবার লিড দেন ফরাসি মিডফিল্ডার আদ্রিয়ান রাঁবিও। কিন্তু বাকি থাকা ৩ মিনিটে কাঙ্খিত চতুর্থ গোলটা আর করতে পারেনি জুভেন্টাস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে জুভরা যখনই প্রথম লেগ হেরেছে, শেষ ছয়বারের পাঁচবারই বাদ পরেছে। এবারও তাই। তুরিনের ওল্ড লেডি ম্যাচ জিতেছে ঠিকই। কিন্তু ৪-৪ অ্যাগ্রিগেটে, অ্যাওয়ে গোলের হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে এফসি পোর্তো।

Share.

Leave A Reply