fbpx

দিল্লি-সিংঘু মহাসড়কই শিশু গুরসিমরাতের ঘর

Pinterest LinkedIn Tumblr +

১১ বছরের শিশু গুরসিমরাত কাউরের ঘরই যেন এখন দিল্লি-সিংঘু সীমান্তের মহাসড়ক। এখানেই চলছে থাকা-খাওয়া এমনকি পড়া লেখাও। বিক্ষোভ প্রতিবাদে, দৃঢ় কণ্ঠে তুলে ধরছে দাবি-দাওয়ার স্লোগান। বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে ঘর ছেড়ে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন প্রান্তের কৃষকরা। পাঞ্জাব থেকে সিংঘু সীমান্তে ১৭ দিন ধরে এই আন্দোলনের সাথে আছে গুরসিমরাত ও তার পরিবার।

বৃটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে গুরসিমরাত বলে ‘এখানে এসেছি আমাদের অধিকার আদায়ে। মোদী সরকারের তৈরি কৃষি আইন আইন বাতিল চাই। শুধু দাবি আদায় হলেই আমরা ঘরে ফিরবো।’

এখানে এসে পড়া লেখার ক্ষতি হচ্ছে না? এমন প্রশ্নের উত্তরেও গুরসিমরাতের ছিল অটল বক্তব্য। বলেছে ‘ আমি ক্লাস সিক্সে পড়ি। পড়ালেখাও গুরুত্বপূর্ণ। তবে এই লড়াইটাও জরুরি।’

কঠোর মনোবল, আর দাবি আদায়ে সোচ্চার শিশু গুরসিমরাত এরই মধ্যে নজর কেড়েছে গণমাধ্যমেরও।

দিল্লি-সিংঘু মহাসড়কই শিশু গুরসিমরাতের ঘর

এভাবেই দিনের পর দিন রাস্তায় কাটাচ্ছেন আন্দোলনরাত কৃষকরা
ছবি : সংগৃহীত

দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে, নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছেন ভারতের লাখো কৃষক। তবে সরকার সিদ্ধান্তে অনড় থাকায় বিক্ষোভ দিন দিন আরও জোড়দার হচ্ছে। দাবি আদায়ে দিল্লিসহ বিভিন্ন মহাসড়ক অবরোধের করে আছেন তারা।

গত বছর সেপ্টেম্বরে, দেশটির কৃষিখাত সংস্কারের তিনটি কৃষি আইন পাস হয়। মোদী সরকারের দাবি নতুন আইনে মধ্যসত্ত্বভোগীদের অত্যাচার থেকে মুক্তি পাবে কৃষকরা। তবে কৃষকরা মনে করছেন এই আইনে বড় প্রতিষ্ঠানগুলোই লাভবান হবে এবং ক্ষতির মুখে পড়বেন তারা।

Share.

Leave A Reply