fbpx

নায়িকা শিমুর বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার, আটক স্বামী

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

১৭ জানুয়ারি(সোমবার) সকাল ১০টায় চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঢাকার মিটফোর্ড হাসপাতালে তার মরদেহ শনাক্ত করেন তার বড় ভাই খোকন।

এদিকে শিমুর হত্যা নিয়ে দেখা দিয়েছিলো রহস্য। তবে সেই রহস্যের জট কিছুটা হলেও খুলেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, স্বামীর হাতেই খুন হয়েছেন এই নায়িকা।

বাসা থেকে হত্যা করে কেরানীগঞ্জ নিয়ে শিমুর মহদেহ ফেলা হয় এমনটাই মনে করা হচ্ছে। গাড়িতে লেগে থাকা রক্তের দাগ দেখেই এই ধারণা।

শিমুর স্বামীসহ আরও একজন গ্রেফতার হয়ে কেরানীগঞ্জ থানায় আটক আছেন। ইতোমধ্যে শিমুর ভাই বাদী হয়ে একটি মামলাও করেছেন।

শিমুর বড় ভাই বলেন, শিমু ও তার স্বামীর মাঝে প্রায়ই ঝগড়া হতো। সেই ঝগড়ার সূত্র ধরেই হয়তো তাকে হত্যা করা হয়েছে।

১৯৯৮ সালে কাজী হায়াত পরিচালিত ‘বর্তমান’ সিনেমা দিয়ে রুপালি পর্দায় তার অভিষেক হয়। অভিনয় করেছেন ৫০ টিরও বেশি নাটকে। অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক হিসবেও দর্শকরা তাকে পর্দায় পেয়েছে।

মরহুম চাষী নজরুল ইসলাম, পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, এ জে রানা,শরিফুদ্দিন খান দ্বীপু, এনায়েত করিম, শবনম পারভীনের সাথেই শিমু কাজ করেছেন। অভিনয় করেছেন শাকিব খান,চিত্রনায়ক রিয়াজ,অমিত হাসান,বাপ্পারাজ,জাহিদ হাসান ও মোশারফ করিম সহ অনেক গুণী অভিনেতার সাথে।

Advertisement
Share.

Leave A Reply