fbpx
BBS_AD_BBSBAN
৪ঠা ডিসেম্বর ২০২২ | ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

না ফেরার দেশে চলচ্চিত্রকার শফিকুর রহমান

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

‘ঢাকা ৮৬’ খ্যাত চলচ্চিত্রকার শফিকুর রহমান বুধবার(১ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। ১৬ দিন আগে তিনি স্ট্রোক করেছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

আজ বাদ জোহর এফডিসিতে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। বাদ আসর ফকিরাপুল জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে মরহুমকে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করার কথা।

গত ১৫ আগস্ট তার স্ট্রোক হয়। সঙ্গে সঙ্গে ঢাকার একটি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে দুই দিন পর তাঁকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

১৯৭৩ সালে চলচ্চিত্রনির্মাতা ফিরোজ আল মামুনের সহকারী পরিচালক হিসেবে চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন শফিকুর রহমান। সিনেমাটির নাম ছিল ‘আলোর পথে’। পরে তিনি আজহারুল ইসলাম খান, সৈয়দ মোহাম্মদ আওয়াল, আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে সহকারী পরিচালক ও কিছু নির্মাতার সিনেমায় সহযোগী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন। ‘হাঙর নদী গ্রেনেড’ সিনেমার সহযোগী চিত্রনাট্যকার ছিলেন তিনি।

‘অভিযান’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করার সময় চিত্রনায়ক রাজ্জাকের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ধীরে ধীরে রাজ্জাকের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘদিন তিনি রাজ্জাকের প্রযোজনা সংস্থা রাজলক্ষ্মী প্রডাকশনের হয়ে কাজ করেছেন। সৈয়দ মুরাদ বলেন, রাজলক্ষ্মীর ব্যানারে তাঁর প্রথম পরিচালিত ছবি ‘ঢাকা ৮৬’। পরে একে একে নির্মাণ করেন ‘রাজামিস্ত্রী’, ‘মালামতি’, ‘জ্বীনের বাদশা’।

Advertisement
Share.

Leave A Reply