fbpx

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সম্মেলনে জড়ো হচ্ছেন বিশ্বনেতারা।

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

আগামী ১৮ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বসবে ৭৮ তম জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ। পৃথিবীর বিভিন্নপ্রান্ত থেকে বিশ্বনেতারা আগামী সপ্তাহে এই সম্মেলনে জড়ো হচ্ছেন। এ সময় বিশ্বনেতারা ২০৩০ সালের মধ্যে মানব উন্নয়নের জন্য গৃহীত সূচকগুলোর অগ্রগতি নিয়ে পর্যালোচনা করবেন। বিশ্বজুড়ে ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও অন্যান্য সংকট নিরসনে পিছিয়ে থাকা সূচকে গতি ফেরানোর পরিকল্পনা করবেন।

এই বছর বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি দেখা যাচ্ছে।  নাসার দেয়া রিপোর্টে উঠে এসেছে পৃথিবী অতীতের সব মাত্রা ছাড়ানো তাপমাত্রার হিসেব । যুদ্ধ এবং মুদ্রাস্ফীতির মধ্যে দারিদ্র্য এবং খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার মতো সংকটও  দিনদিন আরও বাড়ছে। কম বেশি সব দেশেই মানবিক চাহিদা স্কেল এবং খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ধনী এবং দরিদ্রের বৈষম্য শোচনীয় পর্যায়ে পৌঁছে যাচ্ছে।

ইউনজিএ-৭৮ -এ তরুণ নেতৃবৃন্দ সহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ আলোচনা ও বিতর্ক করবেন কিভাবে বৈশ্বিক নানাবিধ সংকট মোকাবিলা করা যায় এবং টেকসই উন্নয়নের জন্য ২০৩০ এজেন্ডার সমস্ত পদক্ষেপ ত্বরান্বিত করার কৌশল খুঁজে বের করা যায়।

২০ সেপ্টেম্বর নির্ধারিত সম্মেলনে জলবায়ু জরুরি অবস্থার প্রতিক্রিয়া জানাতে নেতাদের তাদের সম্মিলিত প্রতিশ্রুতি রাখারও একটি সুযোগ হবে।

জাতিসংঘের সদস্যদেশগুলো ২০১৫ সালে ১৭টি বিস্তৃত ক্ষেত্রে উন্নয়নের কিছু লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে। এর মধ্যে রয়েছে চরম দারিদ্র্য ও ক্ষুধা দূর করা, সুপেয় পানি প্রাপ্তির নিশ্চিত করা, লিঙ্গবৈষম্য দূর করা ও সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার মতো গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) লক্ষ্য পূরণে সময়সীমা ধরা হয়েছে ২০৩০ সাল পর্যন্ত।

যদিও ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে চলমান নানাবিধ সংকটের কারনে এসডিজির লক্ষ্য অর্জনের বিষয়টি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে গিয়েছে। গত জুলাই মাসে প্রকাশিত জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিপদের মধ্যে রয়েছে।

আমরা আশা করব, এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বনেতারা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের এই অধিবেশনে জড়ো হয়ে জরুরি ভিত্তিতে কার্যকর একটি পরিকল্পনা করবেন।

 

Advertisement
Share.

Leave A Reply