fbpx

পরীমনির রিমান্ড: নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা দুই বিচারকের

Pinterest LinkedIn Tumblr +

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমনির দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় রিমান্ড মঞ্জুর বিষয়ে ঢাকার দুই মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস ও আতিকুল ইসলাম নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। এমনকি, ভবিষ্যতে রিমান্ড মঞ্জুরের ক্ষেত্রে তারা সতর্ক থাকবেন বলেও অঙ্গীকার করেছেন।

আজ রবিবার (৩১ অক্টোবর) বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে ক্ষমা প্রার্থনা করে দুই ম্যাজিস্ট্রেটের আইনজীবীর আগেই জমা দেওয়া লিখিত ব্যাখ্যা পড়ে শোনানো হয়।

এর প্রেক্ষিতে আদালত শুনানি নিয়ে রায় ঘোষণার তারিখ রেখেছেন আগামী ২৫ নভেম্বর। এর পাশাপাশি, মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

এর আগে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর চিত্রনায়িকা পরীমনিকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফা রিমান্ডে পাঠানোর ঘটনায় দুই বিচারক দেবব্রত বিশ্বাস ও আতিকুল ইসলামকে আবারও লিখিত ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। তার আগে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর পরীমনির রিমান্ড বিষয়ে নিম্ন আদালতের দুই বিচারকের দাখিল করা ব্যাখ্যায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন হাইকোর্ট। আদালত বলেন, লিখিত ব্যাখ্যায় তারা হাইকোর্টকে শিক্ষা দিয়েছেন। আদালত এ ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট নয়। বিচারকদের ব্যাখ্যায় হাইকোর্টকে ‘হেয়’ করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন আদালত।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট পরীমনিকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন র‌্যাব-১-এর কর্মকর্তা মো. মজিবর রহমান।

Share.

Leave A Reply