fbpx

প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারবে জেলা প্রশাসক

Pinterest LinkedIn Tumblr +

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসায় আবারও ১০ দিন বাড়ল লকডাউনের বিধিনিষেধ। আগামী ১৬ই জুন মধ্যরাত পর্যন্ত সারাদেশে লকডাউনের সব বিধিনিষেধ বজায় থাকবে।

তবে এবারের প্রজ্ঞাপনে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। যেখানে করোনাভাইরাসের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা জেলাগুলোর জেলা প্রশাসকেরা নিজ নিজ এলাকায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, ‘ভাইরাসের (কোভিড-১৯) উচ্চ ঝুঁকি সম্পন্ন জেলাগুলোর জেলা প্রশাসকেরা সংশ্লিষ্ট কারিগরি কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে নিজ নিজ এলাকার সংক্রমণ প্রতিরোধে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।‘

এর আগে এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, ‘প্রয়োজন মনে করলে সিভিল সার্জন ও জন প্রধিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করে স্থানীয় প্রশাসন পুরো জেলা বা আংশিক এলাকায় লকডাউন দিতে পারবেন। ইতিমধ্যে স্থানীয় প্রশাসন চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ কয়েকটি জেলায় লকডাউন দিয়েছেন।‘

উল্লেখ্য, ভারতের সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় জেলাভিত্তিক লকডাউন ঘোষণা করা করেছে প্রশাসন।

সেই লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে চলছে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন। ৫ই জুন শনিবার ভোর থেকে ১১ই জুন শুক্রবার মধ্যরাত পর্যন্ত বজায় থাকবে লকডাউনের বিধিনিষেধ।

এদিকে রাজশাহীতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় চলমান বিধিনিষেধ আরও কড়া করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

রবিবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জরুরী সভায় থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, এখন থেকে সন্ধ্যা ৭টার পরিবর্তে ৫টা থেকে সব দোকান পাট বন্ধ রাখতে হবে। একইসঙ্গে মানু্ষের চলাচল বন্ধ থাকবে।

তবে রাজশাহীর করোনাপরিস্থিতি আরও ৩ থেকে ৫ দিন পর্যেবক্ষণ করা হবে। পরিস্থিতির উন্নতি না হলে পরিস্থিতি অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

Share.

Leave A Reply