fbpx

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও মানবিকতার প্রশংসায় জাতিসংঘের মহাসচিব

Pinterest LinkedIn Tumblr +

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশের উন্নয়ন ও মানবিকতার জন্য প্রশংসা করেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে জাতিসংঘের মহাসচিবের সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক সম্পর্কে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘ মহাসচিব বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীকে ‘ওয়েলকাম টু ইওর হোম’ বলে স্বাগত জানান। কারণ বাংলাদেশ জাতিসংঘের একটি বড় গর্বের বিষয়। বাংলাদেশের এই সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন আন্তোনিও গুতেরেস। এই সাফল্য অর্জনের জন্য বাংলাদেশকে অনেক কষ্ট স্বীকার করতে হয়েছে বলেও জানান আমাদের প্রধানমন্ত্রী।‘

জাতিসংঘের কাছে প্রশংসা কুড়িয়েছে এমন কয়েকটি সাফল্য নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে ভূমিকার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ শীর্ষে রয়েছে। ইউএনডিপির যত প্রকল্প বাংলাদেশে নেওয়া হয়েছে, তার সবগুলোই সম্পন্ন হয়েছে। ইউএনডিপি আমাদের সাহায্য করেছে, কারিগরি সহায়তা দিয়েছে। কিন্তু আমরা তাদের পথ দেখিয়েছি, কীভাবে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে হয়।‘

বাংলাদেশকে সম্মান করার কারণ সম্পর্কেও তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘ মনে করছে যে, একটা দারিদ্র্যক্লিষ্ট বাংলাদেশ এখন একটা চাঙ্গা অর্থনীতি। জাতিসংঘের বিভিন্ন এজেন্সিতে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দেয়। পাশপাশি বাংলাদেশ ও জাতিসংঘের মধ্যে সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ।‘

১৯৭৪ সালে জাতিসংঘের সদস্যপদ পাওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জাতিসংঘের বহু অর্জনের পেছনে বাংলাদেশের নেতৃত্ব রয়েছে, বিশেষ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব।’

বাংলাদেশ জাতিসংঘের একটি বড় হাতিয়ার জানিয়ে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আপনাদের বিভিন্ন উঁচু পদে আমাদের বাংলাদেশের লোক নেই।

এর জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিব জানিয়েছেন, ‘বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হবে।‘

Share.

Leave A Reply