fbpx

বিশ্বে করোনা আক্রান্ত ৭ কোটি ৩৮ লাখ মানুষ

Pinterest LinkedIn Tumblr +

বিশ্বে দিন দিন করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বে ৭ কোটি ৩৮ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন প্রায় ১৬ লাখ ৪১ হাজারের বেশি মানুষ।

করোনা সংক্রমণ সম্পর্কিত পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) বিশ্বে করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ কোটি ৩৮ লাখ ৯ হাজার ৫৭০ জন। আর এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মারা গেছেন ১৬ লাখ ৪১ হাজার ৭৪১ জন। এবং সুস্থ হয়েছেন ৫ কোটি ১৮ লাখ ১৯ হাজার ৪১২ জন।

এই রোগে সবচেয়ে নাজুক অবস্থায় আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। করোনায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৭১ লাখ ৪৩ হাজার ৭৭৯ জন। আর মারা গেছেন ৩ লাখ ৮ হাজার ৮৯ জন। সেখানে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৯৮ লাখ ৭১ হাজার ৬৬৩ জন।

অন্যদিকে, বরাবরের মতোই সংক্রমণ তালিকার ২য় স্থানে আছে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম দেশ ভারত। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৯৯ লাখ ৩২ হাজার ৯০৮ জন। আর প্রাণ হারিয়েছে ১ লাখ ৪৪ হাজার ১৩০ জন।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে তৃতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। সেখানে করোনায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৬৯ লাখ ৭৪ হাজার ২৫৮ জন। আর এতে মারা গেছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৮৫৪ জন।

তালিকার চতুর্থ স্থানে রাশিয়া, পঞ্চম ফ্রান্স এবং ষষ্ঠ যুক্তরাজ্য। আর ইতালিকে পেছনে ফেলে তুরস্ক সপ্তম স্থানে চলে এসেছে। ইতালি এসেছে অষ্টম স্থানে। নবম স্থানে আছে স্পেন এবং দশম স্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। এই তালিকায় বাংলাদেশের স্থান ২৬তম।

তবে দিন দিন মেক্সিকোতে করোনা ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। দেশটিতে একদিনে মারা গেছেন ৮০১ জন। গতকাল যার সংখ্যা ছিল ৩৪৫ জন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয়। কিন্ত তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি।

চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ে।

এরপর চীনের বাইরে ফিলিপাইনে গত ২ ফেব্রুয়ারি করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গত ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারী হিসেবে ঘোষণা করে।

Share.

Leave A Reply