fbpx
BBS_AD_BBSBAN
২২শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ৯ই ফাল্গুন ১৪৩০ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

বেতন-বোনাসের দাবিতে গাজীপুরে সড়ক অবরোধ

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

ঈদের আগে বেতন বোনাস না পাওয়া এবং এর দাবিতে আন্দোলন করা যেনো নিত্ত নৈমত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতিবছর ঈদের আগে মালিকরা প্রতিশ্রুতি দিয়েও শ্রমিকদের বেতন দেয় না। আর এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি।

গাজীপুরের লক্ষ্মীপুরা এলাকার স্টাইল ক্রাফট লিমিটেড নামে পোশাক কারখানার শ্রমিক–কর্মচারীরা বকেয়া বেতন–ভাতা ও ঈদ বোনাস না পেয়ে এলাকায় শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেছেন। পরে তারা জয়দেবপুর-ঢাকা সড়ক অবরোধ করেন। এর আগেও তাঁরা বেতন–ভাতার দাবিতে কয়েক দফায় বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেন।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের লক্ষ্মীপুরা এলাকায় স্টাইল ক্রাফট লিমিটেড পোশাক কারখানায় প্রায় ৪ হাজার শ্রমিক ও ৭০০ কর্মী আছেন। জুনের বেতন ও ঈদুল আজহার বোনাস এখন পর্যন্ত তারা পাননি। গত বৃহস্পতিবার বেতন-ভাতা ও বোনাসের দাবিতে সন্ধ্যা পর্যন্ত আন্দোলন করে শ্রমিক-কর্মচারীরা বাড়ি ফিরে যান।

শুক্রবার ছুটির দিন থাকায় শ্রমিকেরা আন্দোলন বন্ধ রাখেন। শনিবার সকাল থেকে আবারও তারা বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেন।

পুলিশের সাথে কথা বলে জানা যায়, সড়ক অবরোধের ফলে সে এলাকার সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সকালে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক গাজীপুর শহরের বাড়ি থেকে বেরিয়ে কালিয়াকৈরের দিকে যাচ্ছিলেন। শ্রমিকেরা তার গতি রোধ করেন। পরে মন্ত্রী রবিবারের মধ্যে তাঁদের পাওনা পরিশোধের আশ্বাস দিয়ে চলে যান।

কারখানার শ্রমিক জাহানারা বেগম বলেন, চলতি মাসের ১৭ দিন হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত বেতন-বোনাস কিছুই পাননি। বেতন বোনাস না পেলে ঈদে বাড়ি যাবেন কীভাবে, সে চিন্তায় আছেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন শিল্প পুলিশের পরিদর্শক সমীর চন্দ্র সূত্রধর বলেন, প্রতি মাসেই শ্রমিকেরা আন্দোলন করলে তাদের বেতন পরিশোধ করা হয়। গাজীপুরে আর কোনো কারখানায় এমন না হলেও এই কারখানায় প্রতি মাসে শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দেয়।

Advertisement
Share.

Leave A Reply