fbpx

বড় পর্দায় তাসনুভা তিশা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

অভিনেত্রী তাসনুভা তিশা এবার সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছেন। নায়ক হিসেবে তার বিপরীতে আছেন বড়পর্দার পরিচিত মুখ শিপন। ‘ব্যাচ ২০০৩’ চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক পার্থ সরকার। গল্প লিখেছেন রাফায়েল আহসান। ছবিতে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল।

তাসনুভা তিশা বলেন, ‘আমরা ছয় মাস প্রি প্রোডাকশনের পর গত ডিসেম্বরে শুটিং শুরু করি। পুরো শুটিং আমরা রাতের বেলা করেছি। প্রচন্ড ঠান্ডার ভেতর পাতলা একটা শাড়ি পরে আমাকে অভিনয় করতে হয়েছে। শারীরিকভাবে পুরো শুটিংটা আমার জন্যে বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল।’

চরিত্র সন্মন্ধে জানতে চাইলে তিশা বলেন, ‘আমি এখানে একজন সিনেমার নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করছি, নাম এশা। কোভিডের লকডাউনের পর যে তার স্কুলের বন্ধুদের সঙ্গে অনেকদিন পর দেখা করতে যায়। সেখানে যাবার পরই ঘটে অদ্ভুৎ সব ঘটনা।‘

‘ব্যাচ ২০০৩’ সিনেমার পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

শিপন বললেন, ‘আমার চরিত্রটি বেশ ইন্টারেস্টিং। চরিত্রের নাম মারজান। যে এক সময় স্কুলে যা ইচ্ছে তাই করতো। র‌্যাগিং, বুলিং, মারামারি, বেয়াদবি, প্রেম এমন কিছু নেই যে সে করতোনা। তবে সময়ের সঙ্গে অনেক কিছুই বদলায়। বিয়েশাদী করে থিতু হলেও পুরানো প্রেম ভুলতে পারেনা। তিশা আর আমার একসময় গভীর প্রেম ছিল, যার রেশ এখনও আছে। গল্পে একের পর এক চমক আছে। কাজ করতে গিয়ে আমরা খুব উপভোগ করেছি।’

নিজের সিনেমা নিয়ে পরিচালক পার্থ সরকার বলেন, ‘ব্যাচ ২০০৩’ একটি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার ঘরানার চলচ্চিত্র। ছবির গল্প মূলত স্কুল জীবনের র‌্যাগিং, বুলিং নিয়ে। অল্প বয়সের এসব মানসিক অত্যাচার কি রকম প্রভাব ফেলতে পারে তা নিয়েই আমাদের এই সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার।’

সিনেমা মুক্তি বিষয়ে পার্থ সরকার বলেন, ‘আগামী মাসেই আমরা ছবিটি মুক্তি দিতে চাই। আশা করি তার আগেই সব কাজ শেষ করতে পারবো।’

ক্ল্যাপবোর্ড এন্টারটেইনমেন্ট এর প্রযোজনায় সিনেমাটি মুক্তি পাবে দেশীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এ।

 

Share.

Leave A Reply