fbpx

ভারত থেকে আমদানি শুরু হওয়ায় দাম কমলো পেঁয়াজের

Pinterest LinkedIn Tumblr +

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজার ছয় দিন বন্ধ শেষে গতকাল থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি রপ্তানি শুরু হয়েছে। ফলে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানিও শুরু হয়েছে। এরপরই পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১২ টাকা কমেছে।

আগে যেখানে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৪৮ থেকে ৫০ টাকা দরে কিনতেন পাইকারি ক্রেতারা, এখন সেটি ৩৬ থেকে ৩৮ টাকা কেজিতে কিনছেন। এই দাম কমায় তাদের মাঝে স্বস্তিও দেখা গেছে।

হিলি বন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা ব্যবসায়ীরা বলেন, ‘পূজার বন্ধের আগে বন্দর থেকে পেঁয়াজ কিনেছি ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে। বন্ধের পর বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হওয়ায় দাম কমেছে। দাম কমায় আমাদের বেশ সুবিধা হয়েছে।’

হিলি বন্দরের আমদানিকারকরা বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজার বন্ধ শেষে বন্দর দিয়ে পুনরায় পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। এতে দেশের বাজারে সরবরাহ বাড়ায় পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।

সরকার আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার করে নেওয়ায় পেঁয়াজের দাম কমার মূল কারণ উল্লেখ করে তারা বলেন, এতে কেজিপ্রতি ২ টাকার মতো শুল্ক কমেছে। একইসঙ্গে মিয়ানমার থেকে প্রচুর পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। তুলনামূলক পেঁয়াজের দাম কম রয়েছে। বাজারে এর চাহিদাও রয়েছে। দেশি পেঁয়াজের দাম কমে ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় নেমেছে। সামনে নতুন পাতা পেঁয়াজ উঠবে। তখন দাম আরও কমবে বলে আশা প্রকাশ করেন তারা।

হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বলেন, ‘দুর্গাপূজা উপলক্ষে ১১ থেকে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত টানা ছয় দিন বন্ধের পর রবিবার বন্দর দিয়ে পুনরায় আমদানি-রপ্তনি শুরু হয়েছে। বন্দর দিয়ে অন্যান্য পণ্যের পাশাপাশি পেঁয়াজও আমদানি হচ্ছে। গতকাল বন্দর দিয়ে ১৭টি ট্রাকে ৪৭৪ টন পেঁয়াজ আসে।’

Share.

Leave A Reply