fbpx

ভারত ‘২০১০ সালের’ ক্রিকেট খেলছে: মাইকেল ভন

Pinterest LinkedIn Tumblr +

প্রথম ম্যাচ ১০ উইকেটে, পরের ম্যাচ ৮ উইকেটে হার, যে ব্যাটিং দলের মূল শক্তি সেই ব্যাটিং ব্যর্থতা পৌঁছেছে চরম সীমায়। বুমরাহ, শামি, ভরুন চক্রবর্তীদের মতো আইপিএল কাঁপানো বোলাররাও একইরকম কন্ডিশনে সুপার ফ্লপ। তিন ম্যাচ হাতে আছে তবুও সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা ক্ষীণ হয়ে গেছে- সব মিলিয়ে বলা যায় ভারতের জন্য চরম দুঃস্বপ্নের একটা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যাচ্ছে।

কোহলি বাহিনীর কাটা ঘায়ে আরো নুনের ছিটা দিচ্ছে ভারতসহ দুনিয়াজোড়া সকল সাবেক ক্রিকেটারদের কড়া সমালোচনা, দর্শকদের সমালোচনা এড়িয়ে যেতে চাইলেও দিগগজদের কথা এড়িয়ে যাওয়া তো কঠিনই।

যেমন, সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার মাইকেল ভন গতকাল ম্যাচ চলাকালীন পুরোটা সময় ছিলেন টুইটারে সরব। ম্যাচ শেষে তিনি টুইট করে বলেছেন, ভারত যে মানের ক্রিকেট খেলছে বর্তমান যুগে তা অচল- “ভারত ২০১০ সালের ক্রিকেট খেলছে… ক্রিকেট অনেক এগিয়ে গেছে এখন।”

এক ঘন্টা পর তিনি আরো লিখেছেন, “সত্য কথা বলতে… ভারতের যত ট্যালেন্ট আর (পাইপলাইনের) যে গভীরতা, সেই তুলনায় বিগত বছরগুলোতে সাদা বলের ক্রিকেটে তাদের সাফল্য খুবই কম।”

সাবেক ভারতীয় পেসার ইরফান পাঠানের মতে ‘মিরাকল’ বা অত্যাশ্চর্যজনক কিছু ব্যতীত ভারতের সেমিফাইনাল আশা করা বাতুলতা এখন। তিনি টুইট করেছেন, “শাবাশ নিউজিল্যান্ড, তোমরা অসাধারণ ছিলে। আর ভারতীয় দলকে বলবো আপনাদের এখন ‘মিরাকল’ করতে হবে। সময় দ্রুত ফুরিয়ে আসছে। ”

শোয়েব আখতার টুইটারে ভিডিও পোস্ট করে ভারতকে বলেছেন ‘অর্ডিনারি’ (গড়পড়তা) দল।

“তারা ইশান কিষানকে কেন পাঠালো? হার্দিক শেষে বল করলো কেন? আগে কেন না? আমি এই ভারতীয় দলের গেমপ্ল্যানই বুঝতে পারছিনা একেবাইরেই। পুরোপুরি এলোমেলো একটা দল ছিল এরা। কোন প্ল্যান নেই, সবাই প্যানিক করছে। ভিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা নিজেদের চিরায়ত পজিশনে ব্যাট করেনি, তার বদলে একটা নতুন ছেলেকে (ইশান) খেলানো হলো।ভারতকে খুবই ‘অর্ডিনারি’ একটি দল মনে হয়েছে আমার কাছে। বুমরাহ, বরুণ ঠিক আছে, বাকি বোলাররাও অনেক অর্ডিনারি।”

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বাইরেও ভারতকে নিয়ে সমালোচনা থামছেই না। যেমন ডেল স্টেইন স্টার স্পোর্টসে বলেছেন, এই পারফরম্যান্সের জন্য অধিনায়ক কোহলিকে ‘শূলে চড়ানো হবে’।

Share.

Leave A Reply