fbpx

মিয়ানমার: রোহিঙ্গাদের জন্য ন্যায়বিচারের প্রতিশ্রুতি জান্তা বিরোধী জোটের

Pinterest LinkedIn Tumblr +

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে ন্যায়বিচার পাইয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন জান্তা বিরোধী বেসামরিক দলগুলোর এক নেতা। বুধবার এক ফেসবুক পোস্টে এই প্রতিশ্রুতি দেন ডা. সাসা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য দেয়া হয়েছে।

পোস্টে সাসা লেখেন , ‘‘মিয়ানমারের মহান ও সাহসী জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ, নৃশংসতা ও মানবতা বিরোধী অপরাধ করার দায়ে সেনাবাহিনীর জেনারেলদের বিচারের মুখোমুখি না করা পর্যন্ত আমরা থামবো না।”

তিনি জানান, রোহিঙ্গাদের ওপরও নির্যাতন চালিয়েছে সেনারা। এর জন্য তাদেরকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

ডা. সাসা একজন চিকিৎসক। গত ১ ফেব্রুয়ারি, সেনা অভ্যুত্থানের পর দেশটির যে কয়জন বেসামরিক নেতা গ্রেপ্তার এড়িয়ে আত্মগোপন করতে পেরেছিলেন, তার মধ্যে তিনিও একজন। আত্মগোপন করা এই নেতারা জান্তাসরকারকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দেশটিতে নতুন সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চাইছে। তাদের মুখপাত্র হয়ে কথা বলছেন ডা. সাসা।

সেনাবাহিনী এর মধ্যেই সাসার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ এনেছে। বেসামরিক ছায়া সরকারের এই মুখপাত্র এখনও পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

২০১৭ সালে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের বিতাড়িত করতে রাখাইন রাজ্যে অভিযানে নামে সেনাবাহিনী। প্রাণে বাঁচতে প্রায় সাত লাখ ৩০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। রোহিঙ্গাদের উপর ওই দমন-পীড়নকে জাতিসংঘ গণহত্য এবং যুদ্ধাপরাধ বলে বর্ণনা করেছে।

 

Share.

Leave A Reply