fbpx

যুক্তরাষ্ট্রে স্বাধীনতা দিবসের প্যারেডে বন্দুক হামলায় নিহত ৬

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোর অভিজাত শহরতলিতে স্বাধীনতা দিবসের প্যারেডে বন্দুকধারীর গুলিতে ৬ জন নিহত হওয়ার পর সোমবার পুলিশ হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় দেশপ্রেমের সবচেয়ে আবেগময় স্বাধীনতা দিসসের ছুটি উদযাপন গোটা দেশজুড়ে অন্ধকারের ছায়া নেমে আসে।
ইলিনয়ের হাইল্যান্ড পার্ক শহরজুড়ে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন হামলাকারী রবার্ট ক্রিমোকে (২২) শনাক্ত করা হয়। ৪ জুলাইয়ের স্বাধীনতা দিবসের পরিবার কেন্দ্রিক এই প্যারেডে বন্দুকধারী একটি ভবনের ছাদ থেকে উচ্চ ক্ষমতার রাইফেল দিয়ে হামলা চালিয়ে লোকদের হত্যা এবং ঘটনাস্থল আতঙ্কের দৃশ্যে পরিণত হয়।

ছুটির দিনের এই ভিড়ের মধ্যে বন্দুক হামলায় ঘটনাস্থলে বিশৃঙ্খালা সৃষ্টি হয়। আতঙ্কিত লোকজন জীবন বাঁচাতে প্যারেড রুট ছেড়ে দৌঁড়াতে থাকে এবং বসার চেয়ার, বেলুন ও ব্যক্তিগত জিনিসপত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে থাকে।

জরুরি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বন্দুক হামলায় শিশুসহ আহত প্রায় দুই ডজন লোককে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদের অনেকের অবস্থা গুরুতর।

হাইল্যান্ড পার্ক পুলিশ প্রধান লু জগমেন সাংবাদিকদের বলেন, গাড়ি ধাওয়া করে স্বল্প দূরত্বে কোন অঘটন ছাড়াই ক্রিমোকে আটক করা হয়। এর আগে হামলাকারী সশস্ত্র এবং ‘খুব বিপজ্জনক’ বলে পুলিশ সতর্ক করেছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে ধারাবাহিক বন্দুক হামলার এটি ছিল সর্বশেষ ঘটনা। গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ ওয়েবসাইট জানায়, দেশটিতে আগ্নেয়াস্ত্র হামলায় বছরে আনুমানিক ৪০ হাজার লোক নিহত হয়।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, প্যারেড রুটের তিন চতুর্থাংশ পথে সকাল ১০টা ১৪ মিনিটে বন্দুক হামলা শুরু হয়।

নিহত ৬ জনের ৫ জন ঘটনাস্থলেই মারা যান। অপর ব্যক্তিকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর সে মারা যায়। নিহতরা সবাই প্রাপ্তবয়স্ক।

আহতদের বেশীর ভাগকে হাইল্যান্ড পার্ক হসপিটালে নেয়া হয়। এখানকার ডাক্তার ব্রিগহাম টেমপল বলেন, ২৫ জনকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তাদের বয়স ৮ থেকে ৮৫ বছর।
তিনি বলেন, এদের মধ্যে ৪ অথবা ৫ জন শিশু রয়েছে এবং ১৬ জনকে পরে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়।

Advertisement
Share.

Leave A Reply