fbpx
BBS_AD_BBSBAN
৩০শে নভেম্বর ২০২২ | ১৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

যে দেশে প্রথমবারের মতো কেউ করোনা আক্রান্ত হলেন

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

গোটা বিশ্বে করোনা যখন তার তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে, সেখানে প্রশান্ত মহাসাগরের ছোট্ট একটি দ্বীপরাষ্ট্র নির্বিঘ্নে সময় কাটিয়ে যাচ্ছে। করোনা নামের এই অভিশাপ দেশটির মানুষকে লেশমাত্র ছুঁতে পারে নি।

তবে এবার হয়তো তাদের জীবনে দুর্যোগের কালো ছায়া নেমে এসেছে। শান্তিপূর্ণ এই দেশে ছোবল দিয়েছে করোনা। প্রথমবারের মতো দেশটিতে কেউ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

এই দেশের নাম পালাউ। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি এমনটাই জানিয়েছে।

প্রতিবেদন বলছে, সোমবার (৩১ মে) প্রথম কারও করোনা শনাক্তের ঘোষণা দেয় পালাউ। তবে পালাউয়ে প্রথম কারও করোনা শনাক্ত হলেও তা থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর ঝুঁকি নেই বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপে অবস্থিত পালাউর আয়তন ৪৬৬ বর্গকিলোমিটার এবং এর জনসংখ্যা প্রায় ২১ হাজার।

করোনামুক্ত থাকতে তাদের এই প্রচেষ্টা সহজ ছিল না। করোনার শুরুতে তারা সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। তবে এর জন্য তাদের অর্থনীতিতে ধস নামে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, গত মাসের শুরুর দিকে এক ভ্রমণকারী পালাউতে আসেন। পালাউতে আসার পর তাঁর শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

পালাউর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, পালাউতে আসার আগেই ওই ভ্রমণকারীর একবার করোনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। পালাউতে আসার পর তিনি দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। তিনি আগে করোনায় সংক্রমিত হয়েছিলেন বলে জানা নেই।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আরও জানানো হয়েছে, পালাউতে আসা যে ভ্রমণকারীর এখন করোনা শনাক্ত হয়েছে, তাঁর থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর ঝুঁকি নেই। চলতি বছরের জানুয়ারিতে ওই ভ্রমণকারী করোনায় সংক্রমিত হয়েছিলেন বলে জানিয়েছে তারা।

তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায় নি দেশটির কর্তৃপক্ষ। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় বা তিনি কোন দেশ থেকে এসেছেন, সেগুলোর কিছুই জানায় নি তারা।

সতর্কতার অংশ হিসেবে ওই ব্যক্তিকে আলাদা করে রাখা হয়েছে। তাঁর সান্নিধ্যে কারা কারা এসেছিলেন, তাঁদের খুঁজে বের করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

Advertisement
Share.

Leave A Reply