fbpx

লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেছে নেইমারের, আগামী কোপা আমেরিকা নিয়ে শঙ্কা

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

একদিকে ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে উরুগুয়ের বিপক্ষে দলের হার, অপরদিকে চোট পেয়েছেন ব্রাজিলের নেইমাল জুনিয়র। চোট পেয়ে কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছেড়েছেন নেইমার। তখনই বোঝা গিয়েছিল, বড় দুঃসংবাদ আসতে পারে। শেষ পর্যন্ত সেটাই হলো।

হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেছে নেইমারের। আবারও অস্ত্রোপচার করাতে হবে ৩১ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নেইমার। পরে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (সিবিএফ) ও তাঁর ক্লাব আল হিলাল আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা যে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, নেইমারের এবারের চোট এতটাই ভয়ংকর যে অস্ত্রোপচার করানোর পর পুরোপুরি সেরে উঠতে ৭ থেকে ৮ মাস সময় লাগবে বলে দাবি করেছে মার্কা। সেটা হলে আগামী বছর কোপা আমেরিকায় তাঁর খেলার সম্ভাবনা কম। যুক্তরাষ্ট্রে কোপা আমেরিকা শুরু আগামী ২০ জুন। এখন থেকে ঠিক ৮ মাস পর।

উরুগুয়ের রাজধানী মন্তেভিদেওর এস্তাদিও সেন্তেনারিওতে কাল ম্যাচের ৪৪ মিনিট চলছিল। উরুগুইয়ান মিডফিল্ডার নিকোলাস দে লা ক্রুজের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে তাঁর ধাক্কা খেয়ে পড়ে যান নেইমার। প্রথমে মাঠেই নেইমারকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। তবে চোটের ভয়াবহতা বুঝতে পেরে পরে তাঁকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়া হয়। স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়ার সময় কাঁদছিলেন নেইমার।

হাঁটুর স্ক্যান রিপোর্ট হাতে আসার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুঃসংবাদ দিয়েছেন নেইমার, ‘এটা খুবই বেদনার মুহূর্ত, সবচেয়ে বাজে। আমি জানি আমি শক্তিশালী। কিন্তু এবার আমার পরিবার এবং বন্ধুদের বড্ড প্রয়োজন। চোট ও অস্ত্রোপচারের মধ্য দিয়ে যাওয়া সহজ ব্যাপার নয়। একবার কল্পনা করুন, সেরে উঠতে ৪ মাস সময় লাগার পর আবার এটির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে। তবে আমার বিশ্বাস আছে। সবকিছু ঈশ্বরের হাতে ছেড়ে দিচ্ছি, যাতে তিনি আমাকে নতুন জীবন দান করতে পারেন। আমাকে সমর্থন জানিয়ে এবং সুস্থতা কামনায় বার্তা পাঠানোয় ধন্যবাদ।’

Advertisement
Share.

Leave A Reply