fbpx

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগেই স্কুলে মিলল এডিসের লার্ভা!

Pinterest LinkedIn Tumblr +

প্রায় দেড় বছর আগামীকাল খুলছে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সারাদেশে করোনা ও ডেঙ্গুর প্রকোপ থাকায় সরকারের কাছে এবার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। তাইতো প্রতিটি স্কুল ভালোবাবে পরিষ্কার, স্যানিটাইজ করা, ধোয়া মোছা, মশার জীবাণু ধ্বংসে চলছে কর্মযজ্ঞ। তবে এরই মাঝে এক স্কুলে পাওয়া গেল এডিস মশার লার্ভা।

মিরপুরের পীরেরবাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভেতরে টয়লেটে এডিসের লার্ভা দেখে বিষয়টিকে খুবই দুঃখজনক অভিহিত করেছেন উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। সেগুলো আজকের মধ্যেই পরিষ্কার করার জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ দেন ডিএনসিসি মেয়র।

শনিবার সকালে এডিস মশা ও ডেঙ্গু মোকাবেলায় পীরেরবাগ এলাকায় শনাক্তকৃত ডেঙ্গু রোগীর বাড়িসহ আশেপাশে ফগিং, লার্ভিসাইডিং ও অন্যান্য কার্যক্রম সরেজমিনে পরিদর্শনকালে ডিএনসিসি মেয়র একথা বলেন।

তিনি বলেন, ডিএনসিসির পক্ষ থেকে গত ৩দিনে ৬৪০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফগিং ও লার্ভিসাইডিংসহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে।

যদি কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনও বিশেষ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের বাইরে থেকে থাকে তাহলে “সবার ঢাকা” মোবাইল অ্যাপস অথবা ০৯৬০২২২২৩৩৩ ও ০৯৬০২২২২৩৩৪ নম্বর হটলাইন কিংবা আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে অবহিত করা হলে ফগিং ও লার্ভিসাইডিংসহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে দেয়া হবে বলেও জানান ডিএনসিসি মেয়র।

আতিকুল ইসলাম বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নৈতিক ও মানবিক দায়িত্ববোধ থেকেই ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকার সরকারী, বেসরকারী ও আধাসরকারী বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিশেষ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার মাধ্যমে ‘শিক্ষার জন্য সুস্থ্য পরিবেশ’ নিশ্চিত করার পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকসহ সকলকেই সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্য বিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, পাঠদানের জন্য ব্যবহৃত প্রতিটি শ্রেণিকক্ষেই যাতে শিক্ষার্থীদের সঠিকভাবে মাস্ক পরিহিত অবস্থায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পাঠদান করা হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র নগরবাসীকে ঘুমানোর সময় মশারি ব্যবহার করা এবং শিশুদেরকে শর্টস না পরিয়ে পরিপূর্ণ জামাকাপড় পরানোর পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, শিশু হাসপাতালসহ অন্যান্য হাসপাতালে ভর্তিকৃত ডেঙ্গু রোগীর সঠিক তথ্যাদি ডিএনসিসিকে সরবরাহ করা হলে দ্রুততম সময়ের মধ্যেই সংশ্লিষ্ট ডেঙ্গু রোগীর বাড়িসহ আশেপাশে ২০০ মিটার পর্যন্ত ফগিংসহ লার্ভিসাইডিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

ডিএনসিসি মেয়রের নির্দেশনা ও স্থানীয় জনগণের সহায়তায় পীরেরবাগ এলাকায় ফুটপাত ও রাস্থা দখল করে নির্মাণাধীন ভবনের অংশবিশেষ, বিভিন্ন ভবনের সিঁড়ি এবং নির্মাণসামগ্রী বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে উচ্ছেদ করা হয়।

Share.

Leave A Reply