fbpx

শিগগিরই আফগানিস্তানে মেয়েরা স্কুলে যেতে পারবে: তালেবান

Pinterest LinkedIn Tumblr +

আফগানিস্তানে মেয়েদের জন্য স্কুল খুলে দিতে জোর চেষ্টা চলছে এবং তারা শিগগিরই স্কুলে যেতে পারবেন বলে জানিয়েছে ক্ষমতাসীন তালেবান।

আজ মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) কাবুলে তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, নিরাপত্তার কথা ভেবেই আপাতত মেয়েদের জন্য স্কুলে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে তালেবান তাদের নতুন মন্ত্রিসভার বাকি পদগুলোর নাম প্রকাশ করেছে। জানা গেছে, পুরো মন্ত্রিসভায় কোনো নারী স্থান পাচ্ছেন না, যা এখন আনুষ্ঠানিকভাবে স্পষ্ট।

জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বর্তমানে বন্ধ ঘোষিত নারীবিষয়ক মন্ত্রণালয় নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি এ সম্মেলনে। গত সপ্তাহে ওই মন্ত্রণালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়। ওই মন্ত্রণালয়কে নীতিনৈতিকতা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পরিবর্তন করছে তারা। এসময় জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের তৎপরতা বন্ধে তালেবান যোদ্ধারা প্রস্তুত বলেও জানান তিনি। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে, তালেবান গত সপ্তাহে স্কুল খোলার ঘোষণা দেয়। কিন্তু, শুধু ছেলেদের স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত দেয় তারা এবং স্কুলে শুধু পুরুষ শিক্ষকই পাঠদান করবেন বলে ঘোষণায় বলা হয়েছিল। ওই সময় তালেবান বলেছিল, তারা মেয়েদের স্কুল খুলে দেওয়ার বিষয়ে কাজ করছে।

এদিকে, তালেবান ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কর্মজীবী মেয়েদের আইনশৃঙ্খলার উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত ঘরে থাকতে বলা হয়েছে। সম্প্রতি, সরকারি নারী চাকরিজীবীদের ঘরে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন কাবুলের মেয়র হামদুল্লাহ নোমান।

গত ১৫ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের মধ্য দিয়ে কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এরপর তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, নারী অধিকারের প্রতি এবার তারা সম্মান দেখাবে। তবে তা শরিয়াহ্ আইনের মধ্যে থেকেই করা হবে।

Share.

Leave A Reply