fbpx

শীতে খুশকি থেকে বাঁচুন

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ম্যালাসেজিয়া গ্লোবসা নামের এক ধরণের ফাঙ্গাস মূলত খুশকির জন্য দায়ী। এই ফাঙ্গাস চুলে থাকা তেল শুষে নেয় এবং অলিক এসিড তৈরি করে। এতে করে ত্বকে অস্বস্তি হয় এবং ত্বক শুষ্ক হয়ে খুশকি হয়।

অনেকে মনে করেন, অপরিষ্কার থাকার কারণে খুশকি হয়। এই কথাকে উড়িয়ে দিয়েছে আমেরিকান একাডেমি অফ ডার্মাটোলজি এসোসিয়েসান। তবে নিয়মিত চুল পরিষ্কার না করলে খুশকি হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

এতে ত্বক শুষ্ক হয়ে পড়ে এবং খুশকি হয়। এমনকি মানসিক চাপ ও ঠান্ডা আবহাওয়ায় খুশকি হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। তবে সঠিক কারণ জানার জন্য এখনো গবেষণা চলছে।

খুশকি দূর করার উপায়

বৃটেনের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা এনএইসএস জানাচ্ছে, খুশকি দূর করার জন্য খুশকি প্রতিরোধপক শ্যাম্পু ব্যবহার করা যেতে পারে। বিশেষকরে যেসব শ্যম্পুতে জিঙ্ক পাইরিথিওন, স্যালিসিলিক এসিড, সেলেনিয়াম সালফাইড, কিটোকোনাজেল আছে।

অন্যদিকে, আমেরিকান একাডেমি অফ ডার্মাটোলজি এসোসিয়েসন জানাচ্ছে, সবচেয়ে ভালো হয় যদি আপনি এন্টি ড্যানড্রফ শ্যাম্পু ব্যবহার করার আগে এর গায়ে লেখা নির্দেশনাগুলো দেখে নেওয়া যায়। যেমন অনেক শ্যম্পু ব্যবহার করার পর ৪-৫ মিনিট অপেক্ষা করতে বলা হয় আবার অনেক শ্যম্পু ২-৩ মিনিট রাখতে বলা হয়। এমনও শ্যম্পু আছে যা মাথায় ব্যবহার করেই ধুয়ে ফেলতে বলা হয়।

একটি শ্যাম্পু ব্যবহার করার পর যদি খুশকির জন্য উপযোগী না হয়, তাহলে সেটি বদলে আরেকটি শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

মাথার তালুতে যদি খুশকির মত মৃত চামরার পরত ও সেই সাথে চুলকানি থাকে তাহলে সেটি খুশকি নাও হতে পারে। এটি কোনো রোগও হতে পারে। তাই এমনটা হলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

Share.

Leave A Reply