fbpx

সাবধান! পথে নতুন প্রতারণা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

স্বামীর সঙ্গে বাচ্চা নিয়ে বোনের বাসা বনশ্রী যাচ্ছিলেন সুমাইয়া বেগম। ঘটনাটা ছিল ৪ ডিসেম্বর শুক্রবার। ফলে রাস্তায় যান ও মানুষ ছিল কম। বাড্ডা লিঙ্ক রোডে রাস্তা পার হবার সময় তার স্বামী একটু আগে এগিয়ে গেলেই পেছন থেকে কয়েকজন নারী সুমাইয়াকে ঘিরে ফেলে। ঐ দলের একজন বয়স্ক নারী সুমাইয়াকে বলে, সে যেন তাকে রাস্তা পার করে দেয়। সুমাইয়া বয়স্ক এই নারীকে রাস্তা পার করার উদ্যোগ নিতেই সে তাকে জড়িয়ে ধরে রাস্তা পার হয়।

রাস্তা পার হবার পর সুমাইয়া সন্দেহের বসে গলায় হাত দিতেই দেখেন তার গলার স্বর্ণের চেইন আর নেই। ঘটনাটি তিনি তার স্বামীকে বলেন। আর নারী দলটিকে ধরার জন্য চিৎকার করতে থাকেন।

সুমাইয়া ও তার স্বামীর চিৎকার শুনে পথচারী ও কয়েকজন হিজড়া দৌড়ে গিয়ে ঐ নারী দলটিকে আটক করে। গণধোলাই চলতে থাকে। এই ফাঁকে ভিড় বাড়লে একটা সময় ঐ নারীরা সুযোগ বুঝে পালিয়ে যায়।

রাজধানী ঢাকায় প্রতিনিয়তই ঘটছে এমন ঘটনা। শহরের পদে পদে ফাঁদ পেতে রেখেছে সংঘবদ্ধ অপরাধীরা।

এসব অপরাধী চক্রের ফাঁদে প্রতিনিয়ত সর্বস্ব হারাচ্ছেন অনেকেই। এদের মধ্যে বেশির ভাগই গ্রাম থেকে আসা । চলতি পথে অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টি, পকেটমার, ছিনতাইকারী, থুথু পার্টি, ধাক্কা পার্টি, সালাম পার্টি, টানা পার্টিসহ বিভিন্ন নামে, বিভিন্ন স্টাইলে ওঁত পেতে আছে অপরাধীরা। অনেক সময় ঘটছে প্রাণহানির ঘটনাও।

সাবধান! পথে নতুন প্রতারণা

প্রতারক নারীদের ঘিরে জনতার জটলা। ছবি: মুক্তা  মনোয়ার

এদেরই নতুন সংস্করণ এই নারী অপরাধীদের দল। এরা খুবই অসহায় হয়ে সাহায্য চাইবে। যেমন তারা রাস্তা পার হতে পারছে না বলে সাহায্য চাইবে, অথবা কেউ তার বাচ্চাকে কোলে দিতে চাইবে, এমনকি খুব অসহায়ভাবে পানি খেতে চাইবে, এই সুযোগেই হাতের মোবাইল বা গলার চেইন নিয়ে নিবে। এদের বেশির ভাগেরই টার্গেট নারীরা । তাই অপরিচিত কেউ রাস্তা পার হবার সহযোগিতা চাইলে তাকে রাস্তা পার করতে গিয়ে নিজের জীবন ও সম্পদকে বিপদের রাস্তায় ফেলে দেওয়া থেকে সতর্ক থাকুন।

গুলশান থানার ওসি মোঃ আবুল হাসান এ সম্পর্কে বলেন ‘এই ধরণের ছিনতাই চক্রের কথা আগে শুনিনি আজ প্রথম এটা জানলাম। আমরা সবসময় অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যাবস্থা নিই, এটাও তার বাইরে নয়, এখন থেকে এ ব্যাপারে নজরদারি করবে পুলিশ।

Share.

Leave A Reply