fbpx

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কুফল এড়াবেন যেভাবে

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ফেইসবুক,টুইটার, ইনস্টাগ্রামের এই যুগেবাস্তব জীবনকেই হারিয়ে ফেলছেন অনেকে। এর ফলে দেখা দিচ্ছে সম্পর্কের বিভিন্ন ক্ষেত্রে জটিলতা। শুধুমাত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জের ধরেই কত সম্পর্কে চিড় ধরছে। এখন এমনও দেখা যায় আড্ডায় বসে  সবাই কথা না বলে যার যার মত ফেইসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম নিয়ে ব্যস্ত। অনেকেই মনে করতে পারবে না এই সময়ে এসে কতদিন নির্ঝঞ্ঝাট আড্ডা দেয়নি বন্ধুদের সাথে। এসব কারণে দুরত্ব তৈরী হচ্ছে বন্ধুদের সাথে। শুধু বন্ধুদের সাথেই নয়, পরিবার এমনকি স্বামী-স্ত্রীর মাঝেও দুরত্ব তৈরী হচ্ছে।

নিজেকে নিয়ন্ত্রণে আনার কয়েকটি পরামর্শ দিয়েছে জীবনযাপন বিষয়ক একটা ওয়েবসাইট।

১। নির্দিষ্ট একটা সময়ের পর সকল ধরনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে নিজেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। শুধু সিদ্ধান্ত গ্রহণ নয়, এই সিদ্ধান্তে অটুট থাকতে হবে।

২। আপনার আশেপাশে যদি পরিবার বা বন্ধুবান্ধব থাকে তাহলে সারাক্ষণ মোবাইলে মুখ গুঁজে না থেকে তাদের সাথে কথা বলতে হবে। তদেরকে যথাযথ সময় দিতে হবে।

৩। স্বামী-স্ত্রীর সুন্দর মুহুর্তে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মনোযোগী হওয়াটা সংসার ভাঙার কারণ হয়েও দাঁড়াতে পারে। তাই এ ব্যাপারে সচেতন ও আন্তরিক থাকতে হবে। নিজেদের ভেতর একান্ত সময় কাটানোর সময় প্রয়োজনে মোবাইল ফোন নাগালের বাইরে রাখতে হবে।

৪। পরিবার বা বন্ধুদের সাথে সময় কাটানোর সময় ফোনের ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ রাখতে পারেন। ফলে ইন্টারনেটভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো আপনার মনোযোগ নষ্ট করতে পারবে না।

 

 

Share.

Leave A Reply