fbpx

সিনে পর্দা কাঁপানো বহুমুখী চরিত্রের নায়ক ওয়াসিম

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ঢাকাই সিনেমার সোনালী দিনের সুপারস্টার নায়ক ওয়াসিম। সত্তর-আশির দশকে অ্যাকশন হিরো হিসেবে কাঁপিয়েছেন সিনে পর্দা। দাপুটে এই অভিনেতার পুরো নাম মেজবাহ উদ্দীন আহমেদ ওরফে ওয়াসিম। জন্ম, ১৯৫০ সালের ২৩ মার্চ, চাঁদপুরে।

১৯৭২ সালে প্রখ্যাত চিত্র পরিচালক এস এম শফীর ‘ছন্দ হারিয়ে গেলো’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন ওয়াসিম। এতে ছোট একটি চরিত্রে অভিনয়ও করেন তিনি।

দুই বছর বাদেই মহসিন পরিচালিত ‘রাতের পর দিন’ সিনেমায় নায়ক হিসেবে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। আর প্রথম ছবি দিয়েই বাজিমাত। নায়ক হিসেবে জয় করে নেন হাজারো দর্শকের হৃদয়।

এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি । একের পর এক সাফল্য যোগ হয়েছে তার ক্যারিয়ারের ঝুলিতে। কখনো অ্যাকশন, কখনো ফোক, আবার কখনো রোমান্টিক সব ঘরানায়। সব চরিত্রেই অভিনয় দক্ষতার প্রমাণ রেখেছেন ওয়াসিম।

১৯৭৬ সালে মুক্তি পাওয়া এস এম শফী পরিচালিত ‘দি রেইন’ সিনেমাটি তাকে দিয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। বাংলাদেশ ছাড়াও এটি মুক্তি পায় ৪৬ টি দেশে।

সব মিলে ওয়াসিম অভিনয় করেছেন ১৫২টির মতো ছবিতে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘রাজ দুলারী’, ‘ঈমান’, ‘সওদাগর’, ‘ডাকু মনসুর’, ‘বেদ্বীন’, ‘নরম গরম’, ‘বাহাদুর’, ‘মানসী’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘বিনি সুতার মালা’, ‘রাজমহল’, ‘রাজনন্দিনী’, ‘চন্দন দ্বীপের রাজকন্যাসহ আরও অনেক ব্যবসা সফল ছবি।

সিনে পর্দা কাঁপানো বহুমুখী চরিত্রের নায়ক ওয়াসিম

সহশিল্পীর সাথে ওয়াসিম
ছবি: সংগৃহীত

শুধু লাইট, ক্যামেরা আর অ্যাকশনের দুনিয়ায় নয়, বাস্তব জীবনেও এই চিত্রনায়ক ছিলেন শক্তিশালী এক মানুষ। কৈশর থেকেই মনোযোগী ছিলেন শরীরচর্চায়। নাম কুড়িয়েছেন বডি বিল্ডার হিসেবেও।

১৯৭৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত চলচ্চিত্রে শীর্ষ নায়কদের একজন ছিলেন ওয়াসিম। ১৮ এপ্রিল, ২০২১ মহানক্ষত্রের বিদায়ে বিষাদের ছায়া নেমেছে লাখো ভক্তের অন্তরে।

Share.

Leave A Reply