fbpx

পূর্ণাঙ্গরূপে চালু হচ্ছে হোটেল শেরাটন

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

হোটেল শেরাটন বাণিজ্যিকভাবে পূর্ণাঙ্গরূপে চালু হতে আর কোনো বাঁধা নেই। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এবং বোরাক রিয়েল এস্টেট লি: হাইকোর্ট বিভাগের আদেশ অনুযায়ী সমঝোতার ভিত্তিতে শেয়ার বন্টনের চুক্তি স্বাক্ষর করে ডিএনসিসি ইউনিক কমপ্লেক্সের’ (হোটেল শেরাটন) অংশীদারিত্ব বুঝে নিয়েছে দুই পক্ষ। এমনটা জানিয়েছে শেরাটন হোটেল কর্তৃপক্ষ।

পূর্ণাঙ্গরূপে চালু হচ্ছে হোটেল শেরাটন

‘ডিএনসিসি ইউনিক কমপ্লেক্সের’ (হোটেল শেরাটন) অংশীদারিত্ব বুঝে নিয়েছে দুই পক্ষ

এ ছাড়াও শেরাটন হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে ,গত সোমবার ১৩ নভেম্বর ডিএনসিসি কার্যালয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষে মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ও বোরাক রিয়েল এস্টেটের পক্ষে সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহা. নূর আলী সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। চুক্তি অনুযায়ী ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন তার ন্যায্য হিস্যা বুঝে নিয়েছে। অন্যদিকে বোরাক রিয়েল এস্টেটও নিজ অংশ বুঝে পেয়ে হোটেল শেরাটনের পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু করেছে।

একই সাথে, আদালতের নির্দেশ মোতাবেক বনানী ডিসিসি-ইউনিক কমপ্লেক্স এর ২০ তলা বা ২০১ ফুট পর্যন্ত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ও বোরাক রিয়েল এস্টেট লিমিটেডের অংশ বুঝে নিয়েই এই চুক্তি হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে শেরাটন হোটেল কর্তৃপক্ষ। গত ৯ অক্টোবর দুই পক্ষের উপস্থিতিতে আদালত বিষয়টির নিষ্পত্তির আদেশ দেন।

সেই আদেশে বলা হয়েছে, সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ভবনটির ২০১ ফুট উচ্চতা অনুমোদন হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট বিভাগ ভবনের ২১ তলা থেকে ২৮ তলা পর্যন্ত স্থিতাবস্থার আদেশ দেয় এবং ইতোপূর্বে ২০২৩ সালের ১২ জুন এবং ২৯ আগস্টে দেওয়া আদেশ প্রতিপালন পূর্বক শেয়ার স্পেস বুঝে নিয়ে চুক্তি সম্পাদন করতে হাইকোর্ট বিভাগ নির্দেশ প্রদান করে। সেই আদেশের ভিত্তিতেই এই শেয়ার বন্টন চুক্তি সম্পন্ন হয়।

হোটেল শেরাটন হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত সোমবার সম্পাদিত চুক্তির ফলে হোটেল শেরাটন ভবনের ২০ তলা পর্যন্ত শেয়ার বন্টনের কার্যক্রম চূড়ান্ত হলো। ফলে হোটেল শেরাটন পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হতে যাচ্ছে। অন্যদিকে ডিএনসিসিও বুঝে নিয়েছে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার সম্পদ ও বিপুল রাজস্ব আয়।

Advertisement
Share.

Leave A Reply