fbpx

১০২ কিলোমিটার নদী পুনঃখনন

Pinterest LinkedIn Tumblr +

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত জয়পুরহাট জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলা ৪ টি নদীর ১০২ দশমিক ৩৫ কিলোমিটার পুন:খনন করা হচ্ছে।

এতে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা, মৎস্যচাষ, সেচ সুবিধার পাশাপাশি বন্যার কবল থেকে রক্ষা পাবে রোপা আমনসহ অন্যান্য ফসল।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত জয়পুরহাট জেলার তুলশীগঙ্গা, ছোট যমুনা, চিরি ও হারাবতি নদী পুন:খনন ও বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ওই নদী গুলো পুন:খনন কাজ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছে ১২০ কোটি টাকা। নদী গুলো পুন:খননের ফলে বোরো মৌসুমে সেচ সুবিধা, মৎস্যচাষ, বন্যার ঝুঁকি রোধসহ প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা পাবে। জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলা পুন:খনন কৃত নদীর মধ্যে রয়েছে তুলশীগঙ্গা নদী ৪১ দশমিক ৫ কিলোমিটার, ছোট যমুনা নদী ২৩ দশমিক ১০ কিলোমিটার, চিরি নদী ২১ দশমিক ৭০ কিলোমিটার ও হারাবতি নদী ১৬ দশমিক ০৫ কিলোমিটার। এ ছাড়াও তুলশীগঙ্গা নদীর বাম ও ডান তীরের ৩১ কিলোমিটার বাঁধ পুন:নির্মাণ করা হচ্ছে।

প্রকল্পের কাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে এবং গুণগত মান বজায় রাখার জন্য সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন পানি উন্নয়ন বোর্ড জয়পুরহাটের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী তাজমিনুর রহমান। নদী পুন:খনন ও বাঁধ নির্মাণের ফলে বন্যার কবল থেকে ফসল রক্ষাসহ নদীতে পানির ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং শুষ্ক মৌসুমে বোরোসহ অন্যান্য ফসলে সেচ সুবিধা প্রদান করা সম্ভব হবে। এতে প্রাকৃতিক ভারসাম্যও রক্ষা পাবে। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে এ প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন পানি উন্নয়ন বোর্ড জয়পুরহাটের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান।

Share.

Leave A Reply