fbpx

সুনামগঞ্জ ও পিরোজপুরে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত

Pinterest LinkedIn Tumblr +

সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে এক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। বুধবার রাতে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের নোয়াগাঁও এলাকায় মোটরসাইকেল ও যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাসচালককে আটক করেছে পুলিশ।

দুর্ঘটনায় নিহত তিনজনই মোটরসাইকেলের আরোহী ছিলেন্। নিহতরা হলেন, ছাতক উপজেলার কৈতক এলাকার বাসিন্দা হৃদয় আহমদ (২০), জামিল হোসেন (২০) ও লায়েক মিয়া (২০)।

ঘটনার বিবরণীতে পুলিশ জানায়, তিন তরুণ মোটরসাইকেলযোগে ছাতকের জাউয়াবাজার থেকে শান্তিগঞ্জের পাগলাবাজারে যাচ্ছিলেন। নোয়াগাঁও পৌঁছালে অপরদিক থেকে আসা ময়মনসিংহগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলটি দুমড়েমুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই তিন তরুণের মৃত্যু হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ময়নাদতন্ত শেষে বৃহস্পতিবার নিহতদের পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তরের কথা রয়েছে।

এদিকে, বুধবার পিরোজপুরে আরেকটি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন দু’জন। পিরোজপুর-গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের নাজিরপুরের কবিরাজবাড়ি এলাকায় একটি বাস ইজিবাইককে ধাক্কা দিলে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে একজন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কাজী মসিউর রহমান (৩৮) এবং আরেকজন মোহাম্মদ রাকিব (১৭) নামের ইজিবাইকচালক।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার বিকেলে কাজী মসিউর রহমান স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে ইজিবাইকে পিরোজপুর থেকে গোপালগঞ্জ যাচ্ছিলেন। কবিরাজবাড়ি এলাকায় পৌঁছালে পেছন থেকে আসা একটি যাত্রাবহী বাস ইজিবাইকটিকে ধাক্কা দেয়। তাতে আরোহী তিনজনসহ ইজিবাইকচালক গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাঁদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজী মসিউর রহমান ও রাকিবকে মৃত ঘোষণা করেন। ইজিবাইকে থাকা বাকি যাত্রীদের আহত অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার ঘাতক বাসটিকে জব্দ করা সম্ভব হলেও চালক পলিয়েছে বলে জানায় নাজিরপুর থানা পুলিশ।

Share.

Leave A Reply