fbpx
BBS_AD_BBSBAN
৩০শে সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৫ই আশ্বিন ১৪২৯ | পরীক্ষামূলক প্রকাশনা

গরম, লোডশেডিং, বাড়ছে নিউমোনিয়া রোগী!

Pinterest LinkedIn Tumblr +
Advertisement

তীব্র গরম, তার উপর যখন তখন লোডশেডিং। প্রায় সবাই কম বেশি অস্বস্তির ভেতর দিয়ে গেলেও বেশি অসুস্থ হচ্ছে শিশুরা। হাসপাতালে বাড়ছে নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা।

রাজধানীর শিশু হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে গত এক মাস ধরে হাসপাতালে ভর্তি শিশু রোগীর মধ্যে জ্বর, নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া আক্রান্ত শিশুর সংখ্যাই বেশি।

রাজধানীর শিশু হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. প্রবীর কুমার সরকার বিবিএস বাংলাকে জানান, ‘তীব্র গরম ঠেকানো সম্ভব নয়, তবে একটু খেয়াল করে অতিরিক্ত গরম থেকে শিশুদের সুরক্ষিত রাখা সম্ভব। শুরুতে অনেক অভিভাবক বুঝতে পারেন না। তবে সতর্ক থাকতে হবে। শিশুর শরীরে নিউমোনিয়ার লক্ষণ যেমন– জ্বর, ঘনঘন শ্বাস নেওয়া, বুক ডেবে যাওয়ার মতো উপসর্গ দেখা দেওয়া মাত্র কাছাকাছি কোন হাসপাতাল অথবা ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে হবে। মনে রাখতে হবে নিউমোনিয়ার চিকিৎসা যত দ্রুত শুরু করা সম্ভব, শিশুর ক্ষতির পরিমাণ ততই কম হবে।’

ডা. প্রবীর কুমার আরও বলেন, ‘একটু সতর্ক থাকলে নিউমোনিয়ার মতো প্রাণঘাতি অসুখ থেকে শিশুদের সুরক্ষিত রাখা সম্ভব। নিউমোনিয়া যাতে না হয় সেদিকে বেশি সচেতন থাকতে হবে অভিভাবকদের। যেমন, শিশুদেরকে পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো, ঘরে পর্যাপ্ত আলো-বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা রাখতে হবে। গরমে যেনো ঘেমে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। শিশুদের সামনে ধুমপান করা যাবে না। রান্নাঘরের চেয়ে একটু দূরের রুমে শিশুদের রাখতে হবে যেনো রান্নার ধোয়া শিশুর ক্ষতি করতে না পারে। আবার ঘর ঝাড়ু দেওয়ার সময়ও শিশুকে অন্যকক্ষে রাখতে হবে। যাতে ধুলোবালিতে শিশুর ক্ষতি না হয়। এসব সাধারণ বিষয়গুলো একটু খেয়ালে রাখলে আশাকরি, এই গরমেও শিশুদের নিউমোনিয়া থেকে নিরাপদ রাখা সম্ভব হবে।’

গরমে শিশুদের সুস্থ রাখতে পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো, রোদে বের না করা, ঘরে পর্যাপ্ত আলো বাতাসের ব্যবস্থা, বিশুদ্ধ পানি পান ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপর জোর দিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

Advertisement
Share.

Leave A Reply