fbpx

নায়িকা মানেই কুমারী হতে হবে, বিস্ফোরক মাহিমা চৌধুরী

Pinterest LinkedIn Tumblr +

আগে ধারণা ছিল, নায়িকা মানেই কুমারী হতে হবে। কোনও পুরুষ তাকে ছুঁতে পারবে না। তবেই বলিউড তাকে নায়কের বিপরীতে অভিনয়ের সুযোগ দেবে। পুরনো বলিউড এতটাই গোঁড়া ছিল- ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজারকে ঠিক এই কথাই বলেছেন ‘পরদেশ’ সিনেমার নায়িকা মাহিমা চৌধুরী।

দুই যুগ পেরিয়ে বলিউডের পালে লেগেছে আধুনিকতার হাওয়া। মহিমার কথায়, এখন নায়িকারা জোরালো চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পাচ্ছেন। পাশাপাশি, নানা সংস্থার প্রচার মুখও হতে পারছেন। বলিউডে প্রচুর পরিবর্তন। তিনি খুশি।

এত গেল নায়িকাদের খবর, বলিউডে নায়কদের অবস্থার পরিবর্তন হল কি? নায়কেরা বিবাহিত কিনা,  দর্শকেরা খোঁজই রাখেন না। উদাহরণ হিসেবে মাহিমা বলেন ‘কেয়ামত সে কেয়ামত তক’ এর কথা। প্রথম সিনেমায় বিবাহিত আমীর খানকে নায়কের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল। অভিনেতার অনুরাগীরা দীর্ঘদিন বিষয়টি জানতেনই না।

তবে দিন বদলেছে। এখন নায়কদের প্রায় কাছাকাছি পারিশ্রমিক পান নায়িকারা। এমনকি নিজেদের ইচ্ছা-অনিচ্ছের কথা জানাতে পারেন। এই পদক্ষেপ অত্যন্ত ইতিবাচক। এতে কাউকে আর কোনও নির্দিষ্ট গণ্ডিতে বেঁধে দেওয়া হচ্ছে না বলে মনে করেন মাহিমা।

Share.

Leave A Reply