fbpx

পরিবারের তিনজনকে হত্যার ঘটনায় মায়ের মামলা

Pinterest LinkedIn Tumblr +

খুলনার কয়রা উপজেলার বাগালী ইউনিয়নে একই পরিবারের তিনজনকে হত্যা করে মরদেহ পুকুরে ফেলে দেওয়ার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কয়রা থানার ওসি রবিউল হোসেন। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ওসি রবিউল হোসেন বলেন, সোমবার রাতে বামিয়া গ্রামের রাজমিস্ত্রি হাবিবুল্লাহ গাজী, তার স্ত্রী এবং মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করে মরদেহ পুকুরে ফেলে দেয় দুর্বত্তরা। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। ওইদিন রাতেই হাবিবুল্লাহ গাজীর মা কোহিনূর খানম বাদী হয়ে কয়রা থানায় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

নিহতদের পরিবারে লুট করার মত কোনো মালামাল নেই। নিহত তিনজনের মাথায় ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। প্রাথমিকভাবে একে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। ধর্ষণের পর এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। খুনের সাথে জড়িতদের ধরার জন্য এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে বলেও জানায় ওসি।

খুনির কোন খোঁজ এখনো পাওয়া যায়নি জানিয়ে তিনি বলেন, সন্দেহভাজন হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক নারীসহ মোট চারজনকে আমরা আটক করেছি। তাদের থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Share.

Leave A Reply