fbpx

এক দিনে ৮০ লাখ টিকা দেওয়া হবে

Pinterest LinkedIn Tumblr +

আগামীকাল ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন। এ উপলক্ষে দেশে তৃতীয় পর্যায়ে নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা ক্যাম্পেইনের আওতায় কাল ৮০ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে। সারা দেশে একযোগে চলবে এ কার্যক্রম। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মন্ত্রী বলেন, ২৮ সেপ্টেম্বর সারা দেশে ৮০ লাখ ডোজ টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিন সকাল ৯টা থেকে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন পর্যন্ত কার্যক্রম চলবে। এ কার্যক্রমের আওতায় ২৫ বছরের বেশি বয়সীদের টিকা দেয়া হবে। এক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন আগে থেকে নিবন্ধনকারীরা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, কর্মসূচি সফল করতে দেশের ৪ হাজার ৬০০ ইউনিয়নের প্রতিটিতে একটি করে, ৩৩০টি পৌরসভায় ১ হাজার ৫৪টি ও ১২টি সিটি করপোরেশনের ৪৪৩টি ওয়ার্ডে একটি করে কেন্দ্র করা হচ্ছে। এসব কেন্দ্রে কাজ করবেন ৩২ হাজার ৪০৬ জন টিকাদানকারী ও ৪৮ হাজার ৫৯ জন স্বেচ্ছাসেবী।

ক্যাম্পেইনের আওতায় ইউনিয়নের প্রতিটি কেন্দ্রে তিনটি করে, পৌরসভার কেন্দ্রগুলোতে একটি করে ও সিটি করপোরেশনের কেন্দ্রগুলোতে তিনটি করে টিকা প্রয়োগের বুথ থাকবে।

এবারের টিকাদান কর্মসূচিকে গ্রাম পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গ্রামে দরিদ্র জনগোষ্ঠী রয়েছে, যাদের মধ্যে অনেকে বয়স্ক, যারা সবসময় টিকাদান কেন্দ্রে আসতেও পারেন না। তারা এবারের কর্মসূচিতে অগ্রাধিকার পাবেন। এছাড়া আগে নিবন্ধন করে যারা এখনো টিকা পাননি তাদেরও অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

জাহিদ মালেক আরো বলেন, প্রথমদিকে নিবন্ধন একবারে অনেক বেশি হয়েছিল। কোনো কোনো দিন ২০ থেকে ২৫ লাখ মানুষও নিবন্ধন করেছিলেন। সে কারণে আমাদের একটি জট তৈরি হয়েছিল। এখন আমাদের হাতে পর্যাপ্ত টিকা আছে, আর জট থাকবে না। জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে কেন্দ্রে গেলেও এখন টিকা দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Share.

Leave A Reply