fbpx

এক পায়ে শট মারতে চান মমতা, মোদী বললেন ২ মে দিদি যাচ্ছেন

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গরম এখন রাজনৈতিক মহল। পূর্ব মেদিনীপুরে প্রথম দফা ভোটের আগে শেষ প্রচারণায় গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । রবিবার মোট তিনটি জনসভা করার কথা রয়েছে তাঁর।

নন্দকুমারে জনসভায় ফের কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন মমতা। পেট্রোল-ডিজেলের ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও সরব হন তিনি। তিনি বলেন, কৃষক-শ্রমিকদের রোজগার কেড়ে নিয়েছেন, মেয়েদের সম্মান কেড়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বেসরকারিকরণ নিয়েও আওয়াজ তোলেন মমতা।  এদিনের সভা থেকে দল ত্যাগী নেতাদেরও একহাত নেন তৃণমূল নেত্রী।

বাঁকুড়ার জনসভায় মোদী সরকারের উদ্দেশ্যে মমতা বলেন  ‘তোমরা আমার পা ভেঙে দিয়েছো। ভেবেছ এক পায়ে কিচ্ছু করতে পারব না। ওই এক পায়েই এমন শট মারব বাংলার বাইরে গিয়ে পড়বে।’

এদিকে বাংলা দখলে মরিয়া এখন বিজেপিও। রবিবার প্রচারণায় নামলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জুটি। এরমধ্যেই নিজের সভা থেকে সোনার বাংলা গড়ার ডাক দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

বাঁকুড়ার তিলাবেদিয়া ময়দানের সভায় মোদী বলেন ‘লোকসভা ভোটের সময় বাঁকুড়ায় দিদি কি করেছিলেন মনে আছে? এখানকার মানুষদের ভয় দেখাতে সব করেছিলেন দিদি। দিদির হুমকি উপেক্ষা করেই বিজেপিকে ভোট দিয়েছিল বাঁকুড়ার মানুষ। বাংলার মানুষ ঠিক করে নিয়েছে, ২ মে দিদি যাচ্ছেন।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দ্যেশ্য করে মোদী বলেন  ‘আমাকে লাথ মারতে পারেন, কিন্তু বাংলার বিকাশে আপনাকে লাথ মারতে দেব না’

এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ‘দেওয়াল লিখনে দেখানো হচ্ছে আমার মাথায় দিদি লাথি মারছেন। দিদি আমার মাথা নিয়ে ফুটবল খেলছেন। আপনি বাংলার সংস্কৃতিকে অপমান করছেন।’

Share.

Leave A Reply