fbpx

প্রবাসী যুবকের সশ্রম কারাদণ্ড

Pinterest LinkedIn Tumblr +

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে স্ত্রীর দায়েরকৃত যৌতুক মামলায় প্রবাসী স্বামীকে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত। এছাড়া জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলার সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আলম এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি আমান উল্লাহ সোনারগাঁও উপজেলার পশ্চিম বেহাকৈর গ্রামের হযরত আলীর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালতের বেঞ্চ সহকারী জাকির হোসেন বলেন, বিচারক প্রবাসী স্বামীকে যৌতুকের মামলায় এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো ৩ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছে আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৫ জুলাই বাদী জান্নাতুল শ্রাবনীর (২১) সঙ্গে আমান উল্লাহর বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পরে বাড়ির কাজের কথা বলে ৬ লাখ টাকা যৌতুক নেন আমান। এরপর থেকেই বিভিন্ন অজুহাতে আরো অর্থ দাবি করে স্ত্রীকে মারধর করতেন তিনি।

বিয়ের দুই মাস পরে আরও ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে স্ত্রীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেন এবং স্ত্রীর পরিবারকে না জানিয়েই বিদেশে চলে যান। পরে সেলফোনে আমান জানান ৫ লাখ টাকা না পেলে তিনি সংসার করবে না এবং অন্যত্র বিয়ে করবেন। এ ঘটনায় স্ত্রী শ্রাবনী মামলা দায়ের করলে আজ আদালত রায় ঘোষণা করেন।

Share.

Leave A Reply